fbpx
কলকাতাহেডলাইন

মুখ্যমন্ত্রীকে মনে করাতে চাই, আমি কারও রাবার স্ট্যাম্প নই: ধনকর

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: এবার আর টুইট নয়, সাংবাদিক বৈঠক ডেকে রাজ্যপাল সরাসরি আক্রমণ শানালেন মুখ্যমন্ত্রীকে । স্পষ্ট বললেন, ‘ মুখ্যমন্ত্রীকে ওঁর সাংবিধানিক দায়িত্ব মনে করাতে চাই। রাজ্যপালের দায়িত্ব সংবিধানে স্পষ্ট লেখা আছে। আমি কারও রাবার স্ট্যাম্প নই। ‘প্রসঙ্গত সম্প্রতি মুখ্যমন্ত্রী ৯ পাতার চিঠি লিখে ভারতীয় সংবিধানের ধারা উল্লেখ করে রাজ্যপালকে তাঁর ভূমিকা স্পষ্ট করেন মুখ্যমন্ত্রী। এদিন তারই পাল্টা জবাব দিলেন রাজ্যপাল।

সোমবার বিকেলে রাজভবনে সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্য সরকারকে নিশানা করেন জগদীপ ধনকর। এদিন মুখ্যমন্ত্রী নিজেই আইন ভাঙছেন বলে চাঞ্চল্যকর অভিযোগ করেন তিনি। রাজ্যপাল বলেন, ‘ বাণিজ্য সম্মেলন থেকে গণবণ্টন কোনও বিষয়েই প্রশ্ন করলে মুখ্যমন্ত্রী জবাব দেন না। কোথায় যাচ্ছি আমরা।’ একইসঙ্গে তাঁর টিপ্পনী, ‘ উনি চান মানুষ যাতে তথ‌্য না পায়, সেইজন্যই উপেক্ষা করেন।’ এরপরই রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে বলেন, ‘ সন্ত্রাসের স্বর্গরাজ্যে পরিণত হয়েছে বাংলা। ক্ষমতার অলিন্দে বসে রয়েছে হার্মাদরা।’ এরপরই মুখ্যমন্ত্রীকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘ ক্ষমতার অলিন্দে হার্মাদদের অনুপ্রবেশ বন্ধ করুন।’

আরও পড়ুন: অনুপম বিতর্কে ,’ভেবে মন্তব্য করা উচিত’, প্রতিক্রিয়া মুকুলের

এদিন তিনি রাজ্য পুলিশকে আক্রমণ করে বলেন, ‘ নিজের ভূমিকা পালনে ব্যর্থ পুলিশ। তাঁরা সর্বদা রাজনৈতিক প্রতিপক্ষের দরজায় কড়া নাড়ছেন। সবক্ষেত্রে নজরদারি চলছে। বাংলায় যা চলছে তা নৈরাজ্য ছাড়া আর কি? গণতন্ত্র আর পুলিশরাজ একসঙ্গে চলতে পারে না।’ এরপর রাজ্য পুলিশের ডিজিকে উদ্দেশ্য করে বলেন, ‘রাজ্যের ডিজি কীভাবে এতটা দায়িত্বজ্ঞানহীন হতে পারেন , বিশ্বাস করতে পারছি না।’ রাজভবন- নবান্ন সম্পর্কের রসায়ন এদিনের পর কোন দিকে গড়াবে সেটা সময় বলবে। তবে মুখ্যমন্ত্রীর পত্রবোমার পর রাজ্যপালের এ দিনের গর্জন প্রত্যাশিত ছিল বলে মনে করছে তথ্যাভিজ্ঞ মহল।

Related Articles

Back to top button
Close