fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক রাজ্যপালের, নভেম্বরে পাহাড়ে থাকা নিয়ে জল্পনা

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: বুধবার বিকেলেই দিল্লি গেলেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকর। বৃহস্পতিবার কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক করবেন তিনি। এদিন রাজ্যপালের টুইটার অ্যাকাউন্টে জানানো হয়েছে, ‘ দিল্লি সফরে যাচ্ছেন রাজ্যপাল। ২৮ অক্টোবর বিকেলে দিল্লির উদ্দেশ্যে রওনা দিচ্ছেন। ২৯ অক্টোবর কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহের সঙ্গে তাঁর বৈঠক।’

রাজভবন সূত্রে খবর, দিল্লি থেকে ফিরে গোটা নভেম্বর মাসটাই পাহাড়ে কাটাবেন রাজ্যপাল।  হঠাৎ রাজ্যপালের অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক, আর তারপরেই গোটা নভেম্বর মাসটাই পাহাড়ে কাটানোর সিদ্ধান্ত রাজনৈতিক মহলে কৌতুহল সৃষ্টি করেছে। ঘটনা হল তিনবছর ফেরার থাকার পর গত পঞ্চমীর দিন আচমকা কলকাতায় উদয় হন বিমল গুরুঙ। বিজেপির সঙ্গে ত্যাগের ঘোষণা করে তৃণমূল কংগ্রেসকে সমর্থনের ঘোষণা করেন। তৃণমূল কংগ্রেসও পাল্টা টুইট করে গুরুঙকে স্বাগত জানায়।

আরও পড়ুন: বিহার নির্বাচন: ‘২ কোটি চাকরির কথা বললে মোদিকে তাড়িয়ে ছাড়বে জনতা’, নজিরবিহীন তোপ রাহুল গান্ধীর

প্রসঙ্গত মধ্য কলকাতার এক হোটেলে সাংবাদিক বৈঠক করে বলেন, ‘আমি এখনও মনে করি গোর্খাল্যান্ড গঠনের মাধ্যমে আমাদের রাজনৈতিক সমস্যার সমাধান সম্ভব। তাই যে দল আমাদের সমর্থন করবে আমরা তাকেই সমর্থন করবো।’  তিনি আরও বলেন, ‘ প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি, কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, বারবার গোর্খাল্যান্ড গঠনের আশ্বাস দিলেও গত ৬ বছরে সেই দাবি পূরণ হয়নি। তাই আমরা বিজেপি ত্যাগের সিদ্ধান্ত নিয়েছি।’

মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের প্রশংসা করে বলেন,’ উনি আদর্শ নেত্রী, যাকে যা প্রতিশ্রুতি দেন রাখেন। বিধানসভা নির্বাচনে তৃণমূলের সঙ্গে লড়তে চাই।জেলে গেলেও আমি তৃতীয়বারের জন্য মমতাকে মুখ্যমন্ত্রী দেখতে চাই।’ বিমল গুরুং ও তৃণমূলের একুশের নির্বাচনের আগে নয়া সমীকরণ নিয়ে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। এই আবহে রাজ্যপালের অমিত শাহের সঙ্গে বৈঠক ও গোটা নভেম্বর মাস জুড়ে পাহাড়ে থাকার সিদ্ধান্ত যথেষ্ট ইঙ্গিত বাহী বলে মনে করছে তথ্যাভিঞ্জ মহল।

ঘটনা হল, দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই বারে বারেই নবান্নের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়েছেন রাজ্যপাল। কখনও শিক্ষা, কখনও স্বাস্থ্য, আবার কখনও আইনশৃঙ্খলার প্রশ্নে, দুর্নীতির অভিযোগ করে প্রশাসনের বিরুদ্ধে সরব হয়েছেন। আবার তৃণমূল কংগ্রেসও পাল্টা রাজ্যপালের বিরুদ্ধে তোপ দেগেছেন রাজভবনে বসে বিজেপির মুখপাত্রের কাজ করছেন রাজ্যপাল। স্বাভাবিক কারণেই কৌতুহল তৈরি হয়েছে অমিত শাহের কাছ থেকে পরামর্শ নিয়েই কি তিনি পাহাড়ে যাবেন? উত্তরটা সময় বলবে।

Related Articles

Back to top button
Close