fbpx
কলকাতাহেডলাইন

শিক্ষাকে রাজনৈতিক খাঁচাবন্দি করে রাখলে ফল ভয়াবহ হতে বাধ্য, টুইটে তোপ রাজ্যপালের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: রাজ্যপালের ডাকা বৈঠকে বিভিন্ন বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্যেরা বেশিরভাগই যোগ না দেওয়ায় ক্ষুব্ধ রাজ্যপাল। বুধবার দুপুরে তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘ ভার্চুয়াল কনফারেন্সে পশ্চিমবঙ্গ স্বাস্থ্য বিশ্ববিদ্যালয়ের উপাচার্য ও সহউপাচার্যের কাছ থেকে অনেক কিছু জানার সুযোগ হলো। দুর্ভাগ্যজনকভাবে অন্য উপাচার্যরা ছাত্রছাত্রীদের স্বার্থের কথা ভাবলেন না। তাঁরা বৈঠকে থাকেন নি।’ একইসঙ্গে জানিয়েছেন,’ ছাত্রস্বার্থ পরিপন্থী কিছু মানবো না। বৃহস্পতিবার যা বলার বলবো।’

 

এরআগে এদিন সকালে তিনি টুইটে লেখেন, ‘শিক্ষা ব্যবস্থাকে রাজনৈতিক খাঁচাবন্দি করে রাখলে তার ফল ভয়াবহ হতে বাধ্য। এমন ব্যবস্থা আত্মঘাতী। উপাচার্যদের কাছে আইন কি কারও অঙ্গুলি’হেলন।’ একইসঙ্গে তিনি সকালে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে উদ্দেশ্য করে আরও একটি টুইট করেন। সেই টুইটে তিনি লেখেন, ‘ছাত্রছাত্রীদের মুখ চেয়ে এবং তাঁদের অগ্রাধিকারের কথা ভেবে উপাচার্যদের ভার্চুয়াল কনফারেন্সে যোগ দেওয়া প্রয়োজন। এক্ষেত্রে পক্ষপাতমূলক অবস্থান নেওয়া অনুচিত।’

 

প্রসঙ্গত স্নাতক ও স্নাতকোত্তরের চূড়ান্ত পরীক্ষা নেওয়ার জন্য মঞ্জুরি কমিশন (ইউজিসি) যে সিদ্ধান্ত নিয়েছে তা নিয়েই রাজ্যের বিশ্ববিদ্যালয়গুলির সহ উপাচার্য ও উপাচার্যদের সঙ্গে বৈঠক ডাকেন রাজ্যপাল। ইতিমধ্যেই ইউজিসির এই নির্দেশিকার বিরোধিতা করে প্রধানমন্ত্রীকে চিঠি দেন মুখ্যমন্ত্রী। এই আবহে রাজ্যপালের এদিনের টুইট নতুন করে রাজ্য সরকারের সঙ্গে সংঘাত তৈরি করলো বলেই মনে করছে তথ্যাভিঞ্জ মহল।

Related Articles

Back to top button
Close