fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রাজ্যে স্বচ্ছ নির্বাচন করানো আমার সাংবিধানিক দায়িত্ব: ধনকর

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: একুশের নির্বাচনের ঢাকে কাঠি কি মহালয়ার দিনেই পড়ে গেল? বৃহস্পতিবার রাজ্যপাল জগদীপ ধনকরের টুইট বিতর্ক উস্কে দিল। এদিন তিনি টুইটে লিখেছেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে স্বচ্ছ নির্বাচন করানো আমার সাংবিধানিক দায়িত্ব। ‘একইসঙ্গে তাঁর মন্তব্য অবাধ ও স্বচ্ছ নির্বাচন হলো গণতন্ত্রের হৃৎপিণ্ড।’

রাজ্যপালের এই বক্তব্যে স্পষ্ট রাজ্যে অবাধ ও স্বচ্ছ নির্বাচন হয় না। রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেসের বিরুদ্ধে বিজেপি সহ বিরোধী দলগুলোর এমন অভিযোগ রয়েছে। বিজেপি ক্রমাগত এই বিষয়ে সুর চড়িয়ে বলেছে গত পঞ্চায়েত নির্বাচনে সন্ত্রাস করে ভোট করতে দেয়নি তৃণমূল কংগ্রেস। ৩৪ শতাংশ আসনে বিনা প্রতিদ্বন্দ্বিতায় জিতেছে। বিজেপি সহ বিরোধী দলগুলো বারবার দাবি করে কেন্দ্রীয় বাহিনী ছাড়া অবাধ, নিরপেক্ষ নির্বাচন সম্ভব নয়। এদিন সেই সুরেই ধনকর টুইটে লিখেছেন, ‘ মহালয়া ও বিশ্বকর্মা পুজোয় আমার সংকল্প পুলিশ নিশ্চিত ভাবেই রাজনৈতিকভাবে নিরপেক্ষ হবে।” এই টুইটের সঙ্গে একটি ভিডিও বার্তাও রয়েছে রাজ্যপালের। যেখানে তিনি পুলিশের নিরপেক্ষতা নিয়ে প্রশ্ন তুলেছেন।

সেইসঙ্গে বলেছেন প্রত্যেক ভোটার নির্ভয়ে, নিশ্চিন্তে নিজের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন। তাঁকে যেন কোন চাপের কাছে নতি স্বীকার করতে না হয়। সাংবিধানিক প্রধান হিসেবে নিরপেক্ষ নির্বাচন যাতে হয় সেটা দেখা আমার দায়িত্ব।’ একইসঙ্গে তিনি বলেন, ‘ মহালয়ার দিন আমাকে ভারী হৃদয়ে বলতে হচ্ছে রাজ্যে রাজনৈতিক হিংসায় বহু মানুষ প্রাণ হারাচ্ছেন। এই হিংসা বরদাস্ত করা যায় না।’ রাজ্যপালের মন্তব্যেই স্পষ্ট একুশের নির্বাচনে তিনি হিংসা বরদাস্ত করবেন না।রাজ্যপাল হিসেবে দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকেই মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকারের সঙ্গে তাঁর দ্বন্দ্ব লেগেই আছে। কখনও পত্রবোমা, কখনও টুইট যুদ্ধ, নবান্ন রাজভবন সম্পর্কে স্নায়ুযুদ্ধ চলছেই।

Related Articles

Back to top button
Close