fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

চোরা শিকারিদের হাত থেকে পরিযায়ী পাখিকে বাঁচাতে পাহারার ব্যবস্থা

অনুপ কুমার বিশ্বাস, বাসন্তী: শীত পড়তেই সুন্দরবনের বিভিন্ন জঙ্গলে ইতিমধ্যে দেখা দিয়েছে বিভিন্ন প্রজাতির পরিযায়ী পাখি। এই পরিযায়ী পাখি শিকারি করতে নেমেছে কিছু চোরাকারবারিরা। গত কয়েকদিন ধরেই এই এলাকায় চোরাশিকারির আনাগোনা ঘটলে তাদের হাতেনাতে ধরে ফেলে এলাকার বাসিন্দারা । পঞ্চায়েত এর পক্ষ থেকে তাদের সাবধান করে দেওয়া হয়েছে বলে জানান পঞ্চায়েতের উপপ্রধান নরেশচন্দ্র নস্কর।

তিনি জানান, চুনাখালি পঞ্চায়েত এর পক্ষ থেকে ১০০ দিনের কাজের প্রকল্পে পাহারাদার এর ব্যবস্থা করা হয়েছে। প্রতিদিন সকালে ও সন্ধ্যায় দুজন করে পাহারাদার রাখা হয়েছে। এই শীতেই সুন্দরবনে ঝড়খালি, পাখিরালা, দয়াপুর, সাতোজেলিয়ায় ও চুনাখালি বিভিন্ন এলাকায় প্রচুর পরিযায়ী পাখি দেখা যায়। এই পাখিদের কলরবে মুখরিত হয়ে ওঠে এলাকা। এই চোরাকারবারীদের হাত থেকে পাখিদের বাঁচাতে ইতিমধ্যে গোসাবার বিধায়ক জয়ন্ত নস্কর বন দপ্তরে চিঠি পাঠিয়েছেন বলে জানান। যাতে এই পাখিদের কেউ ক্ষতি করতে না পারে সে বিষয়টি দেখার জন্য পঞ্চায়েত কে বলেছেন এবং তিনি আরো জানান নিজে প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা নিচ্ছেন।

তবে এই পরিযায়ী পাখি সুন্দরবনের আশায় যেমন পর্যটকদের আনাগোনা বেড়েছে তেমন ব্যবসা বাণিজ্য আগের থেকে অনেক বেড়েছে বলে জানান পর্যটন ব্যবসার সঙ্গে যুক্ত ব্যবসায়ীরা। প্রতিবছর শীত পড়তেই দেখা যায় বিভিন্ন প্রজাতির পরিযায়ী পাখি কিন্তু এবারে শীত পড়ার আগে থেকেই এই এলাকায় পরিযায়ী পাখির আনাগোনা শুরু হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close