fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

জামালদহে প্রথম করোনা আক্রান্তের হদিস, বন্ধ করা হল বাজার

বিজয় চন্দ্র বর্মন, মেখলিগঞ্জ: মেখলিগঞ্জ ব্লকের জামালদহে প্রথম করোনা আক্রান্তের হদিস মেলায় এলাকায় ব্যাপক আতঙ্ক ছড়িয়েছে। গত সাত দিন আগে এক ব্যক্তির লালা রসের নমুনা সংগ্রহ করেছে স্বাস্থ্য দপ্তর। রিপোর্টে ওই ব্যাক্তির করোনা পজিটিভ ধরা পড়েছে বলে জেলা স্বাস্থ্য দপ্তর সূত্রে খবর। আক্রান্ত ব্যক্তির বাড়ি জামালদহের আশ্রম পাড়া এলাকায়। পেশায় গৃহশিক্ষক ওই ব্যক্তি পজিটিভ রিপোর্ট আসার আগের দিনেও ছাত্রছাত্রীদের টিউশন পড়িয়েছেন। ফলে ছাত্রছাত্রী ও অভিভাবক – অভিভাবিকারা আতঙ্কিত হয়ে পড়ে। আক্রান্ত ব্যক্তিকে কোচবিহার কোভিড হাসপাতালে চিকিৎসার জন্য নিয়ে যাওয়া হয়েছে। বর্তমানে সেখানেই তিনি চিকিৎসাধিন অবস্থায় রয়েছেন।

করোনা পজিটিভ রিপোর্ট আসতেই এলাকাকে স্যানিটাইজড করার পাশাপাশি ওই এলাকাকে কনটেইনমেন্ট জোন ঘোষনা করেছে প্রশাসন। এদিকে ওই ব্যাক্তির পজিটিভ রিপোর্ট আসার আগের দিনেও জামালদহ বাজারের বেশ কিছু স্থানে ঘোরাঘুরি এমনকি কয়েকটি দোকানেও বসেছিল বলে জানা গিয়েছে। ওই ব্যক্তির কোনও ট্রাভেল হিস্টোরি রয়েছে কিনা সেটা খতিয়ে দেখছে প্রশাসন।

এদিকে জামালদহ ব্যবসায়ী সমিতি রবিবার বৈঠক করে সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে বুধবার থেকে রবিবার পর্যন্ত শুধু মাত্র ওষুধের দোকান বাদে সমস্ত দোকানপাঠ বন্ধ রাখার। সেই মোতাবেক বুধবার থেকে রবিবার পর্যন্ত বন্ধ থাকছে জামালদহ বাজার। জামালদহ ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি রঞ্জিত মন্ডল জানিয়েছেন, সরকারি লক ডাউনের পাশাপাশি জামালদহ ব্যবসায়ী সমিতি কয়েকদিন জামালদহ বাজার বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত গ্রহন করেছে। এলাকার মানুষ ও দোকানদাররা স্বতঃস্ফূর্ত ভাবে তা মেনে নিয়েছেন এবং বুধবার থেকে বাজারের দোকানদাররা দোকানপাঠ বন্ধ রাখার কথা দিয়েছেন। তবে জরুরী পরিসেবা গুলি চালু থাকবে। এলাকায় যাতে করোনার সংক্রমন ছড়িয়ে না পড়ে সেজন্য এই সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে।

মেখলিগঞ্জ মহকুমা হাসপাতাল রোগী কল্যান সমিতির চেয়ারম্যান পরেশ চন্দ্র অধিকারী জানিয়েছেন, যারা ওই ব্যক্তির সংস্পর্শে এসেছেন তাদেরকে নিজেদের বাড়িতে কোয়ারেন্টাইনে থাকতে হবে। অসুস্থ‍্য বোধ করলে সঙ্গে সঙ্গে স্বাস্থ্য কেন্দ্রে যোগাযোগ করতে হবে। যখন লালা রসের নমুনা সংগ্রহ করা হবে তখন সোয়াব টেস্ট করতে হবে। তবে আতঙ্কিত হওয়ার কিছু নেই। সকলকে মাস্ক ব্যবহার ও স্বাস্থ্য বিধি মেনে চলতে হবে।

Related Articles

Back to top button
Close