fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

কোলাঘাটে লকডাউন অমান্যকারীদের সাতসকালেই শাসন, রাস্তাঘাট শুনশান

বাবলু ব্যানার্জি, কোলাঘাট: রাজ্যে করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বাড়ছে । কমার লক্ষণ দেখতে পাওয়া যাচ্ছে না। মাঝেমধ্যে মাসে কয়েকটি লকডাউন ঘোষণা করে আক্রান্তের সংখ্যা কমানোর মরিয়া প্রয়াস রাজ্য সরকারের লক্ষ্য করা গেলেও সেই প্রয়াস মুখ থুবড়ে পড়েছে তা এই সংখ্যা তথ্যই জানান দিচ্ছে।

সেপ্টেম্বর মাসের আজ ছিল দ্বিতীয় লকডাউন পরপর দু’দিন লকডাউন ঘোষণা করা হলেও নিট পরীক্ষা থাকায় শনিবারের লকডাউন প্রত্যাহার করে নিয়েছে রাজ্য সরকার। আজকের লকডাউনে প্রশাসনকে সাতসকালেই অতি সক্রিয়তা লক্ষ্য করা গেল কোলাঘাট ব্লকে। পূর্ব মেদিনীপুর জেলার কোলাঘাট ব্লকে এর আগেও লকডাউনের চেহারা যা ছিল, আজকের চেহারা সম্পূর্ণ ছিল ভিন্ন।

রাজ্য সরকারের ঘোষণা অনুযায়ী বেশ কয়েকটি লোকডাউনে মানুষের মধ্যে গাছাড়া ভাব লক্ষ্য করা গিয়েছিল কিন্তু এবার সেটা দেখতে পাওয়া গেল না কোলাঘাট ব্লকের দেউলিয়া বাজারে। সাত সকালে ফুল ব্যবসায়ী থেকে শুরু করে দোকানদার ভাইয়েরা দোকান খোলার জন্য গেলে কোলাঘাট থানার পুলিশ অতি সক্রিয়তা মধ্য দিয়ে তাদের লাঠি উঁচিয়ে তাড়া করতে লক্ষ্য করা গেছে। যে সমস্ত দোকানপাট খুলবার জন্য ব্যবসায়ীরা সাতসকালেই চেষ্টা করেছিল বন্ধ করে দিয়েছে প্রশাসন নিজের হাতেই।

কোলাঘাট ব্লকের ১৩টি অঞ্চলের গ্রামীণ রাস্তাঘাট ছিল এক প্রকার জনমানব শূন্য। কোলাঘাট ব্লকের উপর দিয়ে ৬ ও ৪১ নম্বর জাতীয় সড়ক গেছে তার চেহারাটাও ছিল আজকে অন্য। অন্যান্যবারে গাড়ি চলাচল লক্ষ্য করা গেলেও এবারে কিন্তু ছিল শুনশান।

ব্লক প্রশাসনের প্রশাসনিক প্রধান মদন মোহন মন্ডল বলেন, বারবার সরকারের পক্ষ থেকে প্রচার করা হয়েছে সচেতনতা নিয়ে এবং সরকারের নিয়মাবলীকে মান্যতা দেবার জন্য অনুরোধ করা হয়েছে। রাজ্য সরকারের নির্দেশ যেভাবে আসবে তা পালন করা হবে বলে তিনি জানান।

কোলাঘাট থানার ওসি রাজকুমার দেবনাথ বলেন পুলিশ জাতীয় সড়ক থেকে গ্রামীণ সড়কের প্রধান প্রধান স্থানগুলিতে বারবার টহল দিচ্ছে। লকডাউন অমান্যকারীদের বুঝিয়ে ঘর পাঠিয়ে দেওয়া হয়েছে।বেশ কিছু স্থানে মানুষ লকডাউন অমান্য করলে প্রশাসন গিয়ে ব্যবস্থা নিয়েছে। সন্ধ্যা পর্যন্ত কোলাঘাট ব্লকের বিভিন্ন স্থানে টহল চলবে। কোলাঘাট বিট হাউসের পক্ষ থেকে আজকের লকডাউন কে সামনে রেখে অতি সক্রিয়তা লক্ষ্য করা গেছে।

Related Articles

Back to top button
Close