fbpx
আন্তর্জাতিকবাংলাদেশহেডলাইন

হাসিনা সরকার ভোটকে তামাশায় পরিণত করেছে, নির্বাচন কমিশন ঠুঁটো জগন্নাথ : মির্জা

যুগশঙ্খ প্রতিবেদন, ঢাকা: বাংলাদেশের  নির্বাচন কমিশনকে ঠুঁটো জগন্নাথ বলে অভিহিত করেছেন প্রধান বিরোধী দল বিএনপি মহাসচিব মির্জা ফখরুল ইসলাম আলমগীর। তিনি বলেছেন, ‘আজ আমাদের দুর্ভাগ্য এখন যে নির্বাচন কমিশন আছে, সেটি একটি ঠুঁটো জগন্নাথ। লজ্জা-শরম বলতে কিছু নেই। তারা বলছেন, ঢাকা-৫ উপনির্বাচনে ১০ শতাংশ ভোট পড়েছে। আমরা মনে করি ৫ শতাংশও ভোট পড়েনি। একটা মানুষের লজ্জা-শরম-হায়া থাকে, এদের তাও নেই। তারা বলছেন নির্বাচন সুষ্ঠু হয়েছে।’ সোমবার ঢাকায় এক প্রতিবাদ সমাবেশে এসব কথা বলেন তিনি।

বাংলাদেশে নির্বাচন তামাশায় পরিণত হয়েছে উল্লেখ করে এই বিরোধী নেতা বলেন, ২০১৮ সালে নির্বাচনের আগের রাতে তারা ভোট ডাকাতি করেছে। তার আগে ২০১৪ সালের নির্বাচনে ১৫৪ জনকে বিনাপ্রতিদ্বন্দ্বিতায় নির্বাচিত করে সরকার গঠন করেছে। এ সরকারের অধীনে মানুষের ভোটের অধিকার নেই।’

তিনি বলেন, অনেকে আমাদের প্রশ্ন করেন– তা হলে আপনারা নির্বাচনে যান কেন? আমরা নির্বাচনে এই জন্য যাই, কারণ আমরা একটা উদার গণতান্ত্রিক দল। আমরা মনে করি, নির্বাচনের মাধ্যমে সরকারের পরিবর্তন হবে। আমরা নির্বাচনে গিয়ে প্রমাণ করতে চাই, এই সরকারের অধীনে কোনো সুষ্ঠু নির্বাচন হয় না।’

সম্প্রতি বাংলাদেশে হয়ে যাওয়া তিনটি উপনির্বাচনে অনিয়মের অভিযোগ তুলে বিএনপির মহাসচিব বলেন, ‘আমি আজ স্পষ্ট ভাষায় বলতে চাই– পদত্যাগ করুন। অতীতের সব নির্বাচন বাতিল করে একটি নিরপেক্ষ সরকারের অধীনে এবং একটি নিরপেক্ষ নির্বাচন কমিশনের পরিচালনায় নির্বাচনের ব্যবস্থা করুন। এটিই একমাত্র সমাধান। বিএনপির মহাসচিবের ভাষ্য– এই সরকারের অধীনে কোনো মানুষই নিরাপদ নয়। মা-বোনেরা নিরাপদে চলাফেরা করতে পারেন না। সারা দেশে ধর্ষণের মহোৎসব শুরু হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close