fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

আজ হাথরস কাণ্ডের শুনানি, কড়া নিরাপত্তায় এলাহাবাদ আদালত চত্বর

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘ চাপান-উতোরের মধ্যে দিয়ে আজ হাথরস কাণ্ডের শুনানি। এলাহাবাদ কোর্টে আজ এই শুনানি শুরু হবে। নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যদের উপস্থিত থাকার কথা। আদালত চত্বর জুড়ে কড়া নিরাপত্তায় মুড়ে রাখা হয়েছে। সোমবার সকালেই হাথরাস থেকে রওনা দেন নির্যাতিতার পরিবারের সদস্যরা। ৩৮০ কিলোমিটার দূরে লখনউ যাচ্ছেন তাঁরা। জানা গেছে নির্যাতিতার পরিবারের সঙ্গে রয়েছে সাব ডিভিশনাল ম্যাজিস্ট্রেট অঞ্জলি গানওয়ার। জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারও রয়েছেন।

বিচারক রঞ্জন রায় ও জশপ্রীত সিংয়ের ডিভিশন বেঞ্চ এই ঘটনায় উত্তরপ্রদেশের অতিরিক্ত মুখ্যসচিব, রাজ্যের পুলিশ প্রধান ও অতিরিক্ত ডিরেক্টর জেনারেল অফ পুলিশ, হাথরাসের জেলাশাসক ও পুলিশ সুপারকেও হাজিরা দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছে।

এদিকে নির্যাতিতার বাড়ির চারদিকে কঠোর পুলিশি নিরাপত্তা রয়েছে। স্থানীয় পুলিশ সবসময় পরিবারের সঙ্গে যোগাযোগ রাখছেন। এই ঘটনা ঘিরে যাতে মানুষ কোনও রকমে গুজবে কান না দেয় তার দিয়ে খেয়াল রেখেছে পুলিশ।

প্রসঙ্গত, গত ১৪ সেপ্টেম্বর হাথরাসের ১৯ বছরের ওই তরুণীকে গণধর্ষণের অভিযোগ ওঠে চারজনের বিরুদ্ধে। বেশ কয়েক দিন হাসপাতালে মৃত্যুর সঙ্গে পাঞ্জা লড়ার পরে মৃত্যু হয় তরুণী। উত্তরপ্রদেশে মেয়েদের নিরাপত্তা নিয়ে প্রশ্ন উঠেছে। সিবিআই তদন্তের দাবি করা হয়। চাপে পড়ে সিবিআই তদন্তের অনুমতি দেওয়া হয় যোগী সরকারের তরফে। শনিবারই সেই তদন্ত ভার নিয়েছে সিবিআই। নির্যাতিতার মৃত্যুর পরে পরিবারের হাতে দেহ না তুলে দিয়ে জোর করে তা জ্বালিয়ে দেয় পুলিশ। এই ঘটনায় ক্ষোভে ফেটে পড়ে দেশ।

আরও পড়ুন:দিলীপ ঘোষের সভা নিয়ে অশান্তি, গ্রেফতার ৪

এদিকে তদন্ত শুরুর প্রাথমিক পর্যায়ে জানা যায় ঘটনার আগে নির্যাতিতার পরিবারে সঙ্গে ফোনে ১০৪ বার কথা হয় অভিযুক্তের পরিবারের সঙ্গে। এমনকী এক অভিযুক্তের দাবি এই ঘটনায় তাদের ফাঁসানো হচ্ছে। কিন্তু এই ঘটনায় দোষী নির্যাতিতার পরিবার। তারাই খুন করেছে নির্যাতিতাকে।

Related Articles

Back to top button
Close