fbpx
কলকাতাহেডলাইন

‘মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে ভয়ে তিনমাস মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে লুকিয়ে ছিলেন’ বিজেপি নেতৃত্বকে তোপ মমতার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ‘ভয়ে তিন মাস সবাই মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বাড়ির পিছনে ভিডিও কর্নারে লুকিয়ে ছিলেন। কঠিন সময়ে মানুষের পাশে না দাঁড়িয়ে শুধু রাজনীতি করছেন।’ শুক্রবার নাম না করে বিজেপির রাজ্য নেতৃত্বকে একহাত নিলেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। একইসঙ্গে কেন্দ্র অপরিকল্পিতভাবে পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্য পাঠানোয় রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি জটিল হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন তিনি।

শুক্রবার হরিশ পার্কে কলকাতার সবুজায়ন অনুষ্ঠানে যোগ দেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রী। সেখানে রাজ্যের কঠিন পরিস্থিতি নিয়ে মুখ খোলেন মমতা। বাংলার মুখ্যমন্ত্রীর কথায়,’ তিনমাস কোনও আয় নেইকেন্দ্র সরকারকে,। শুধু ব্যয় হচ্ছে। তারপরেও রাজ্যের প্রতিটি কর্মচারীদের কাছে মাস পয়লায় বেতন দিচ্ছি।’ কেন্দ্র সরকারকে একহাত নিয়ে তিনি বলেন, ‘কেন্দ্র তো সাংসদদের ৩০ শতাংশ বেতন কেটে নিয়েছে। সাংসদ তহবিলের টাকা বন্ধ করে দিয়েছে। আমরা তো তা করিনি। উলটে পরিযায়ী শ্রমিকদের ফিরিয়ে আনার ট্রেন ও বাসভাড়া আমরা দিয়েছি।

রাজ্যে সংক্রমণ বেড়ে যাওয়ার জন্য পরিযায়ী শ্রমিকদের কাঠগড়ায় তোলেননি মুখ্যমন্ত্রী। বরং তিনি কেন্দ্রীয় সরকারের পরিকল্পনাহীনতাকেই দায়ি করেছেন। তাঁর কথায়, ‘কেন্দ্র কোনও পরিকল্পনা ছাড়াই পরিযায়ী শ্রমিকদের রাজ্যে ফেরাচ্ছে। রাজ্যে পাঠানোর আগে না তাঁদের ঠিক করে খেতে দেওয়া হয়েছে। না চিকিৎসা করা হয়েছে। অনেকেই তো অসুস্থ। তাঁরা ট্রেনে আসার সময়ই মারা যাচ্ছেন।’

আরও পড়ুন: তৃণমূল কংগ্রেসকে বঙ্গোপসাগরে ফেলাই আমাদের প্রতিজ্ঞা: সৌমিত্র খাঁ

মমতার কথায়,’ কেউ কেউ এমন পরিস্থিতিতেও রাজনীতি করছেন। বলছেন বাংলার মুখ্যমন্ত্রীকে গদিচ্যুত করে আমাদের ক্ষমতায় নিয়ে আসুন। এটা কি রাজনীতি করার সময়? তার চেয়ে রাজ্যের মানুষের হয়ে কাজ করুন না। গাছ লাগান, পুকুর পরিষ্কার করুন। সে সব তো করবেন না।’ এরপর বিরাধীদের কটাক্ষ করে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, ‘ভয়ে তিন মাস সবাই মুখে লিউকোপ্লাস্ট লাগিয়ে বাড়ির পিছনে ভিডিও কর্নারে লুকিয়ে ছিলেন। আমরা মানুষের পাশে থেকেছি।’

Related Articles

Back to top button
Close