fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

প্রবল বর্ষণে ডুয়ার্সে জনজীবন বিপর্যস্ত, ফসলের ক্ষতি হওয়ার আশঙ্কা

সংবাদদাতা, মালবাজার: গত কয়েক দিন ধরেই ডুয়ার্স ও সংলগ্ন পাহাড়ের   বিভিন্ন এলাকায় চলছে প্রবল বর্ষণ। এতেই প্রতিটি নদী ও ঝোড়াগুলি ফুলেফেঁপে উঠছে। কোথাও শুরু হয়েছে নদী ভাঙন আবার কোথাও জলমগ্ন হয়েছে কৃষি জমি থেকে মানুষের বাড়িঘর।

সোমবার থেকে চলছে বর্ষণ। মঙ্গলবার রাত ও বুধবার প্রবল বর্ষণ হলেও বৃহস্পতিবার খানিকটা পরিস্কার হয়েছিল। কিন্তু শুক্রবার সকাল থেকে শুরু হয় ফের বর্ষণ। এই বর্ষণে ডুয়ার্সের লিস, ঘিস নদীতে ভাঙন দেখা গেছে। দুরন্ত লিস নদী চলতি বছরে সাওগাও বস্তির বিঘা পর বিঘা কৃষি জমি গ্রাস করেছে। বৃহস্পতিবার ওই বস্তির কয়েকশ বাসিন্দা বাঁধ নির্মাণের জন্য ডেপুটেশন দিয়েছিল। শুক্রবার দেখা গেল সেচ দফতর ও ব্লক প্রশাসনের পক্ষ থেকে জেসিবি মেসিন দিয়ে নদীর মুখ ঘুরিয়ে দশ হাজার ঘানি ব্যাগ দিয়ে নদী ভাঙন রোধ করার প্র‍য়াস চলছে।

[আরও পড়ুন- ব্রাহ্মণ, কীর্তনীয়া সমাজের ভাতার দাবিতে বিক্ষোভ উলুবেড়িয়ায়]

মাল, মেটেলি ও নাগরাকাটা ব্লকের বহু কৃষি জমি জলমগ্ন অবস্থায় দেখা গেছে। ক্রান্তি এলাকার পুরস্কার পাওয়া কৃষক বিমল মন্ডল জানান, এই বৃষ্ঠিতে ধান সহ অন্যান্য সবজির ব্যাপক ক্ষতির আশংকা দেখা দিয়েছে। যাদের ধানে ফুল এসেছিল বৃষ্টিতে ফুল ঝরে যাবে। ফলন পাবেনা। যেসব ধান জলে ডুবে গেছে সেখানেও ফলন মার খাবে।

শুধু কৃষি নয়, প্রবল বর্ষণে চা-বাগানেও উৎপাদন ব্যাহত হয়েছে। সোনগাছি চাবাগানের ম্যানেজার রাধেশ্যাম খান্ডেলওয়াল জানান, লাগাতার এরকম বৃষ্টিতে পাতার বৃদ্ধি কমে যায়। গত বছরের তুলনায় প্রায় ২৫ শতাংশ কমে গেছে। অন্যান্য চাবাগানের থেকে একই রকম জবাব পাওয়া গেছে।

অন্যদিকে জাতীয় সড়ক দফতর থেকে জানা গেছে যে, ধস সাফাই করে ডুয়ার্সের সঙ্গে শিলিগুড়িরর যোগাযোগ স্বাভাবিক হয়েছে। সিকিম ও কালিম্পংগামী জাতীয় সড়কে ২৯ মাইল পর্যন্ত রাস্তা পরিস্কার হয়েছে। শ্বেতি ঝোড়ার কাছে পাহাড় কেটে রাস্তা ভরাট করার কাজ চলছে। সামগ্রিক ভাবে প্রবল বর্ষণে ডুয়ার্স ও পাহাড়ের জনজীবন বিপর্যস্ত হয়েছে।

 

Related Articles

Back to top button
Close