fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা বেড়ে গিয়েছে, ঘোষণা নেপালের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আরও বাড়ল মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা। ফলে বদলাতে হবে ভূগোলের পাঠ্যবইয়ে এভারেস্ট সংক্রান্ত বহু তথ্য। মঙ্গলবার এক সাংবাদিক বৈঠকে নেপাল সরকার ঘোষণা করল যে, সম্প্রতি মাউন্ট এভারেস্টের উচ্চতা বেড়ে গিয়েছে। বর্তমানে এভারেস্টের উচ্চতা ৮৮৪৮.৮৬ মিটার। অর্থাৎ .৮৬ মিটার বেড়ে গিয়েছে এভারেস্টের।

 

 

এদিন নেপালের বিদেশ মন্ত্রী ঘোষণা করেছেন, বিশ্বের উচ্চতম শৃঙ্গের উচ্চতা বেড়ে গিয়েছে। ১৯৫৪ সালে সার্ভে অফ ইন্ডিয়ার সমীক্ষায় উঠে এসেছিল এভারেস্টের সাম্প্রতিকালের উচ্চতা। সেইসময় জানা যায় এভারেস্টের উচ্চতা ৮,৮৪৮মিটার। ২০১৫ সালে ভয়াবহ ভূমিকম্পের পর নেপাল সরকার পক্ষ থেকে জানানো হয়, এর জেরে এভারেস্টের উচ্চতা বেড়ে গিয়েছে। এরপর থেকে নেপাল চিনের সঙ্গে চুক্তি করে শৃঙ্গের উচ্চতা মাপার জন্য একটি দল পাঠায়। ২০১৯ সালে কাঠমাণ্ডু ও বেজিংয়ের যৌথ প্রচেষ্টার কথা ঘোষণা করেন দুই দেশের প্রধানমন্ত্রী। প্রসঙ্গত, চিনের রাষ্ট্রপতি শি জেনপিং নেপাল সফরের সময়ই ওই চুক্তিকে সাক্ষর করেন। এর আগে ১৯৭৫ ও ২০০৫ সালে এভারেস্টের উচ্চতা প্রকাশ করেছিল চিন। সেই দু-বার চিনের হিসেবে এভারেস্টের উচ্চতা ছিল ৮৮৪৮.১৩ মিটার এবং ৮৮৪৪.৪৩ মিটার। তিব্বতি ভাষায় মাউন্ট এভারেস্টের নাম মাউন্ট কুয়োমোলাঙ্গমা।

 

বিশেষজ্ঞদের মতে, ২০১৫ সালে ভয়ংকর কম্পনের পরই সমগ্র হিমালয় পর্বতমালায় বিপুল পরিবর্তন আসে। সেই সময় বিশেষজ্ঞরা দাবি করেছিলেন যে ওই ভূমিকম্পের জেরে বদল আসতে পারে হিমালয়ের পর্বতশৃঙ্গগুলির উচ্চতা। প্রসঙ্গত, ১৮৪৯ সালে এভারেস্টের উচ্চতা মাপার প্রথম কাজ শুরু হয়। তারপর ৬ বছর ধরে সেই কাজ চলার পর এভারেস্টের উচ্চতা ২৭হাজার ২ ফুট হিসেবে স্বীকৃতি দেওয়া হয়। সেই উচ্চতা মাপার নেতৃত্বে ছিলেন বাঙালি গণিতজ্ঞ রাধানাথ শিকদার।

 

Related Articles

Back to top button
Close