fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

ভেদাভেদ ভুলে করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ে ১৩০ কোটি দেশবাসীকে ঐক্যবদ্ধভাবে লড়াইয়ের আহ্বান জানালেন মোহন ভাগবত

ইন্দ্রাণী দাশগুপ্ত, নয়দিল্লি: ১৩০ কোটি ভারতবাসীকে ভেদাভেদ ভুলে একইসাথে একজোটে করোনাভাইরাস এর সাথে লড়াইয়ের ডাক দিলেন রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের প্রধান মোহন ভাগবত। মনের থেকে সমস্ত ক্রোধ দূর করে দিয়ে সেবার মন্ত্রে দেশবাসীকে দীক্ষিত হওয়ার আহ্বান রবিবার নিজের ভিডিওবার্তায় জানান মোহন ভাগবত।

রাষ্ট্রীয় স্বয়ংসেবক সংঘের বছরে দু’বার সংঘ প্রধানের  বক্তব্য দেওয়ার  নির্ধারিত প্রথা এই প্রথমবার ভেঙে দেশের এই করোনা সংকটকালে  বক্তব্য পেশ করলেন সংঘ প্রধান মোহন ভাগবত। রবিবারের তার পুরো বক্তৃতার প্রতিটা ছত্রে ছিল দেশবাসীকে সেবাধর্মী উদ্বুদ্ধ করার প্রয়াস। প্রথম থেকেই তিনি স্বয়ংসেবকদের সঙ্গে  সমগ্র ভারতবাসীকে সমস্ত ভেদাভেদ ভুলে এই মুহূর্তে দেশ সেবায় নিজেকে নিয়োজিত করার কথা বলেন ।

তিনি বলেন, হতে পারে ভারত তেরে টুকরে হোঙ্গে এই ধরনের মানসিকতা সম্পন্ন কিছু মানুষ দেশের বিভিন্ন প্রান্তে বিচ্ছিন্নভাবে অশুভ ইচ্ছার প্রতি জনগণকে উস্কে দেওয়ার চেষ্টা করবেন। কিন্তু আমাদের নিজেদের মনকে সংযত রাখতে হবে। কারণ দেশ এখন একটা কঠিন সময়ের মধ্যে দিয়ে যাচ্ছে। এই মুহূর্তে পারস্পারিক ভাতৃত্ববোধ এবং সেবা ধর্মই পারে দেশকে এই সংকটের থেকে বের করে আনতে। এই প্রসঙ্গে তিনি পালঘর দুজন সন্ন্যাসীর নির্মম হত্যার প্রসঙ্গ উল্লেখ করে বলেন, পালঘরে যে বা যারা আইন কে হাতে তুলে নিয়ে দুজন নিরুপদ্রবী সন্ন্যাসীকে হত্যা করল তাতে আমরা সবাই ভীষণভাবে দুঃখিত এবং এর জন্য বিশ্ব হিন্দু পরিষদ বা অন্যান্য সাধু সংগঠন যে কর্মসূচি গ্রহণ করেছেন তাতে আমাদের সম্মতি আছে। কিন্তু কিছু বিশেষ মানুষের ভুলের জন্য পুরো সম্প্রদায়ের বিরুদ্ধে অশুভ মনোভাব  প্রকাশ করা বা পোষণ করা উচিত নয় বলে ঐদিন মন্তব্য করেন সংঘ প্রধান মোহন ভাগবত।

তিনি আরো বলেন, এই মুহূর্তে যে সমস্ত মানুষ সমস্যার মধ্যে রয়েছেন তাদের সেবা করাই হল দেশ সেবা। এই প্রসঙ্গে তিনি ভগিনী নিবেদিতা এবং ডঃ বি আর আম্বেদকর এর জীবন দর্শনের উল্লেখ করেন। তিনি বলেন, ভগিনী নিবেদিতা বলেছিলেন নাগরিক অনুশাসন সব থেকে বড় দেশ ভক্ত। একই সাথে ভারতের সংবিধানের রচয়িতা ডঃ আম্বেদকর বারে বারে সাংবিধানিক অনুশাসন মেনে চলার কথা বলেছেন । সরকারের দেওয়া সমস্ত বিধি-নিষেধ  এই মুহূর্তে সঠিকভাবে পালন করে চলা নিজের জন্য  এবং দেশের সুস্থতার জন্য  অত্যন্ত প্রয়োজনীয় বলে মন্তব্য করেন মোহন ভাগবত।  এই প্রসঙ্গে তিনি মাক্স ব্যবহার , বারেবারে হাত ধোয়া, সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখা  এই বিষয়গুলি উল্লেখ করেন ।

এই মুহূর্তে দেশে যে মারাত্মক সংকট চলছে সেটা এক সময় শেষ হয়ে যাবে বলে আশা প্রকাশ করে সংঘ প্রধান বলেন কিন্তু লকডাউন শেষ হয়ে গেলেই সমস্ত বিষয় আগের মতোই হয়ে যাবে সেরকম না ভাবাই ভালো। হতে পারে দীর্ঘদিন আমাদের সামাজিক দূরত্ব মেনে চলতে হবে। স্কুল কলেজ, অফিস ,কল কারখানা সবই খুলে যাবে একদিন ঠিকই ।কিন্তু আমাদের মনে রাখতে হবে যে আমরা এক জায়গায় অনেক মানুষের জমায়েত করব না। নিজেদের মধ্যে দূরত্ব বজায় রেখে কিভাবে কাজ করা যাবে তার স্পষ্ট নির্দেশিকা সরকারের তরফ থেকে যেরকম আসবে আমাদের তা মেনে চলতে হবে।

বক্তৃতায় সংঘ প্রধান বলেন, ভারত বরাবরই বিশ্ব মানবতার ক্ষেত্রে  উল্লেখযোগ্য অবদান রেখেছে ।এবারও করোনা সংকটকালে  ভারত যেভাবে সারা পৃথিবী কে  ওষুধ  দিয়ে করোনা মোকাবিলায় সাহায্য করছে তা সমগ্র পৃথিবীর কাছে দৃষ্টান্ত । শুধু সরকারি নয় সমগ্র দেশবাসীকেও এইভাবে  মানব সেবায় ব্রতী হতে হবে বলে  এই দিন  আহ্বান জানান  সঙ্ঘপ্রধান। সবশেষে তিনি বলেন বলেন, পৃথিবীর মধ্যে বিশ্ব মানবতাবোধকে জাগ্রত করতে এবং নিজেদের বিশ্ব মানবতাবোধের শ্রেষ্ঠ আসনে প্রতিষ্ঠা করতে ও নতুন ভারত গড়ে তুলতে এই মুহূর্তে ১৩০ কোটি ভারতবাসীকে সংঘবদ্ধভাবে লড়াই করতে হবে এবং করোনার বিরুদ্ধে এই যুদ্ধে অবশ্যই জয়লাভ করতে হবে।

Related Articles

Back to top button
Close