fbpx
কলকাতাহেডলাইন

সারদা মামলায় দেবযানী মুখার্জিকে CBI-এর সঙ্গে সবরকম সহযোগিতা করতে সময় দিল হাইকোর্ট

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: সারদা মামলায় দেবযানী মুখার্জিকে সিবিআই এর সঙ্গে সবরকম সহযোগিতা করতে আট সপ্তাহের সময় দিল কলকাতা হাইকোর্ট। সম্প্রতি জামিন পেতে এই প্রথম কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন বেআইনি লগ্নি সংস্থা সারদার আর্থিক কেলেঙ্কারির মামলায় অন্যতম প্রধান অভিযুক্ত দেবযানী মুখোপাধ্যায়। এদিন মামলার শুনানিতে কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থা সিবিআই তার জামিনের বিরোধিতা করে জানান তদন্তে সহযোগিতা করছেন না দেবযানী মুখোপাধ্যায়।

তার প্রেক্ষিতে ডিভিশন বেঞ্চ জানায়, সারদা মামলায় দেবযানী মুখার্জিকে সিবিআই এর সঙ্গে সবরকম সহযোগিতা করতে আট সপ্তাহের সময় দেওয়া হল। দেবযানীর জামিনের আবেদন আট সপ্তাহের মধ্যে তিনি সহযোগিতা করার পরেই শুনবে আদালত।

মূলত ভয়েস টেস্ট, সুদীপ্ত সহ বেশকিছু অন্য অভিযুক্তের মুখোমুখি বসার জন্য তিন বছর ধরে চেষ্টা করলেও দেবযানী সহযোগিতা করেন নি বলে এদিন তার জামিন মামলায় হাইকোর্টে জানায় সিবিআই।

এর আগেও জামিনের আবেদনের কলকাতা হাইকোর্টের দ্বারস্থ হয়েছিলেন দেবযানী মুখোপাধ্যায়। দেবযানীর আইনজীবী অয়ন চক্রবর্তী জানান, ‘সিবিআই তাঁর মক্কেলের বিরুদ্ধে ৪০৯ ধারায় মামলা করেছে। এই ধারায় বলা হয়েছে, সাধারণ মানুষের টাকা নিয়ে সরকারি আধিকারিকেরা যদি নয়ছয় করেন, তা হলে যাবজ্জীবন কারাদণ্ড হতে পারে। কিন্তু দেবযানী তো আর সরকারি অফিসার নন!’

হাইকোর্টে আবেদনে আইনজীবীর আরও যুক্তি, সিবিআই দেবযানীর বিরুদ্ধে যে-তিনটি মামলা করেছিল, তার মধ্যে আরসি ৪ (রেগুলার কেস) এবং আরসি৫-এ দেবযানী ইতিমধ্যেই জামিন পেয়ে গিয়েছেন। বাকি রয়েছে আরসি৬। অয়নবাবুর অভিযোগ, এই মামলায় ২০১৪ সালের ২২ অক্টোবর শেষ বার জেলে গিয়ে তাঁর মক্কেলকে জেরা করেছিল সিবিআই। তার পরে তাঁকে এই মামলায় আর জেরা করা হয়নি। শুরু হয়নি এই মামলার বিচার।

Related Articles

Back to top button
Close