fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

উচ্চমাধমিক ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনার চাঞ্চল্য

নিজস্ব প্রতিনিধি, মারিশদা (পূর্ব মেদিনীপুর): কাঁথি ৩ ব্লকের এক উচ্চমাধমিক ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে। ছাত্রীর ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধারের ঘটনায় এলাকায় তৈরি হয়েছে গুঞ্জন। পুলিশ গিয়ে বাড়ি থেকে ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে। প্রেম সম্পর্কের কারনে আত্মঘাতী বলে স্থানীয় বাসিন্দাদের দাবি।

পুলিশ জানিয়েছে যে, মৃত ছাত্রীর নাম সুপ্রিয়া প্রধান (১৭)। তার বাড়ি পূর্ব মেদিনীপুর জেলার মারিশদা থানার ধাউরিয়াবাড় এলাকায়।

পুলিশ ও স্থানীয় সূত্রে জানা গিয়েছে যে, ওই ছাত্রী স্থানীয় একটি স্কুল থেকে এবছর উচ্চ মাধ্যমিক পরীক্ষা দিয়েছিল। বুধবার সকালে বাড়ির সিলিং ফ্যানে ওড়নার ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলন্ত মৃতদেহ দেখতে পায় পরিবারের লোকেরা। ঘটনার খবর পেয়ে হাজির হয় মারিশদা থানার পুলিশ। বাড়ি থেকে ওড়নার ফাঁস লাগানো অবস্থায় ঝুলন্ত মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে আসে।

মৃতদেহটি কাঁথি মহাকুমা হাসপাতালের ময়নাতদন্তের জন্য পাঠান হয়েছে। যদিও ছাত্রীর পরিবারের পক্ষ থেকে থানার কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি।

স্থানীয় বাসিন্দারা জানিয়েছেন যে, এক যুবকের সঙ্গে ছাত্রীর প্রেমের সম্পর্ক ছিল। কয়েকদিন আগে সেই সম্পর্ক ভেঙে যায়। এরপর থেকে মানসিকভাবে ভেঙ্গে পড়েছিল ওই স্কুলছাত্রী। সেই কারনে আত্মঘাতী বলে অনুমান।

মারিশদা থানার ওসি অমিত দেব বলেন, ঘটনার খবর পেয়ে মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়না তদন্তের জন্য কাঁথি হাসপাতালে পাঠানো হয়েছে। পরিবারের পক্ষ থেকে কোনও অভিযোগ দায়ের করা হয়নি। অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে ঘটনার তদন্ত শুরু করা হয়েছে। প্রেম সম্পর্কের কারনে আত্মঘাতী কিনা তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close