fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

মন্দিরময় পাথরার প্রাণপুরুষ ইয়াসিন পাঠানকে সম্মাননা

ভাস্করব্রত পতি, তমলুক : মন্দির রক্ষায় তাঁর ভূমিকা অনস্বীকার্য। একজন মুসলিম হয়েও হিন্দুদের ধর্মস্থান রক্ষায় তাঁর কর্মকাণ্ডের দরুন তাঁকে ভারতের রাষ্ট্রপতি দিয়েছেন ‘কবির পুরস্কার’। সেই বিরল ব্যক্তিত্ব পাথরার ইয়াসিন পাঠানকে এদিন সম্মাননা প্রদান করলো মেদিনীপুরের দুটি সংগঠন।

রাইডিংয়ে বেরিয়ে শুধু ভ্রমণের আনন্দ নেওয়া নয়, পাশাপাশি সামাজিক দায়বদ্ধতার কথা মাথায় রেখে করোনা আবহে স্বাস্থ্য সচেতনতার বার্তা এবং কৃতি ব্যক্তিত্ব মহম্মদ ইয়াসিন পাঠানকে সম্মাননা প্রদান করা হল দুই রাইডিং সংস্থা মাসা এবং ফ্রেন্ডস অন হুইলসের পক্ষ থেকে।

মন্দিরময় পাথরা চত্বরে উপস্থিত থেকে মন্দিরময় পাথরার ইতিহাস ও বর্তমান সময়ে এই পর্যটন ক্ষেত্রের সম্ভাবনা ও সমস্যার নানা দিক তুলে ধরেন মন্দিরময় পাথারার মন্দির রক্ষার প্রাণপুরুষ তথা ‘পাথরা পুরাতত্ত্ব সংরক্ষণ কমিটি’র সম্পাদক ইয়াসিন পাঠান ও কমিটির কোষাধ্যক্ষ দীপক মহাপাত্র। মাসা ও ফ্রেন্ডস অন হুইলস এর পক্ষ থেকে ইয়াসিন পাঠানের হাতে পুষ্পস্তবক তুলে দিয়ে সম্মাননা জ্ঞাপন করা হয়।

পাশাপাশি এদিন ভ্রমণ এলাকার আশেপাশে উপস্থিত শিশু-কিশোর, পথচারী পুরুষ ও মহিলাদের হাতে মাস্ক তুলে দেওয়া হয় এবং কোরোনা সম্বন্ধীয় স্বাস্থ্য সচেতনতার বার্তা দেওয়া হয়। পাথরা ভ্রমণের পর ফ্রেন্ডস অন হুইলসের সদস্যরা আরাবাড়ির উদ্দেশ্যে রওনা দেন।

রাইডিং বিষয়ক পরিচিত সংস্থা ফ্রেন্ডস অন হুইলস আজ পশ্চিম মেদিনীপুরের মন্দিরময় পাথরা, আরাবাড়ির জঙ্গল সহ বিভিন্ন জায়গা ভ্রমণ করেন। জেলায় তাঁদের স্বাগত জানানো হয় ‘মেদিনীপুর অটোমোটিভ স্পোর্টস এন্ড এডভেঞ্চারস এসোসিয়েশন’ তথা ‘মাসা’-র পক্ষ থেকে। পাথরা ঢোকার মুখে আমতলায় তাঁদের স্বাগত জানাতে মাসার সভাপতি পূর্ণেন্দু শেখর কালী, সম্পাদক গৌতম ভকত সহ অন্যান্যরা উপস্থিত ছিলেন। পরে মাসার সদস্য অরিন্দম দাস, আকাশ গাঙ্গুলী, অভিজিৎ দে, শুভ্রাংশু শেখর সামন্ত, সৌমেন্দ্র বেরা, নরসিংহ দাস, সুদীপ কুমার খাঁড়াদের সাথে ফ্রেন্ডস অন হুইলসের বন্ধুরা পাথরা ভ্রমণে যান। সেখানে পুষ্পস্তবক ও হলুদ গোলাপ দিয়ে মাসার পক্ষ থেকে তাঁদের বরণ করে নেওয়া হয়।

Related Articles

Back to top button
Close