fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

দুর্গাপুরে শর্ট সার্কিট থেকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড, পুড়ে ছাই সাইকেল-মোটর সাইকেল

জয়দেব লাহা, দুর্গাপুর: শর্ট সার্কিট থেকে ভয়াবহ অগ্নিকান্ড। পুড়ল সাইকেল, মোটর সাইকেল। বরাত জেরে প্রানে বাঁচল আবাসনে থাকা ৬ টি পরিবার। আগুনের লেলিহান শিখায় গ্রাস করল গোটা আবাসন। শনিবার রাত্রে ঘটনাকে ঘিরে চাঞ্চল্য ছড়াল, দুর্গাপুর নিউ টাউনশিপ থানার এবিএল টাউনশিপে।

ঘটনায় জানা গেছে, এবিএল টাউনশিপের এলআরএম-এর একটি আবাসনে ৫ টি পরিবার থাকেন। আবাসিকরা জানান, ” এদিন রাত ২ টা নাগাদ আবাসনের সিঁড়ির তলায় থাকা ইলেকট্রিক বোর্ডে হঠাৎই শর্টসার্কিট হয়। শর্টসার্কিটে আগুনের ফুলকি থেকে সিঁড়ির তলায় থাকা ৪ টি বাইক ও ৪ টি সাইকেলে আগুন ছড়িয়ে পড়ে। ভয়াবহ আগুনের লেলিন শিখা আবাসনের চারতলা পর্যন্ত ছড়িয়ে পড়ে।” ধোঁয়া ও উত্তাপ ছড়িয়ে পড়াই আবাসনের ভেতরে থাকা পরিবারের লোকজনের ঘুম ভেঙে যায়। আগুনের উত্তাপে গৃহবন্দি হয়ে পড়ে আবাসনে থাকা পরিবার গুলি। দোতলার ব্যালকনি থেকে এক যুবক আবাসনের নীচে নেমে প্রতিবেশীদের খবর দেয়। খবর দেওয়া হয় দমকলে। প্রতিবেশীরা বালতি করে জল নিয়ে আগুন নেভানোর চেষ্টা চালায়। ঘটনাকে কেন্দ্র করে এলাকায় ব্যাপক চাঞ্চল্য ছড়িয়ে পড়ে।

আরও পড়ুন: লকডাউনে বিপন্ন সবংয়ের খড়িয়ালরা, অন্ধকারের কবলে তাঁদের শিল্পীসত্তা

স্থানীয় বাসিন্দারা দমকলে খবর দেয়। প্রায় ১ ঘন্টার চেষ্টায় দমকলের একটি ইঞ্জিন আগুন নিয়ন্ত্রণ করে। আবাসনে গৃহবন্দি হয়ে পড়া ৬ টি পরিবারের প্রায় ২৫ জন সদস্য’কে উদ্ধার করা হয়। যদিও ঘটনায় কেউ আহত হয়নি। ততক্ষণে ৪ টি বাইক ও ৪ টি সাইকেল আগুনে ভষ্মীভূত হয়ে যায়। আগুনের লেলিহান শিখায় আবাসনের প্রতিটি কাঠের দরজা পুড়ে যায়।

আবাসনের বাসিন্দা সূপর্ণা দে ও সঞ্জয় মুখোপাধ্যায় বলেন, “আবাসনের চারতলা পর্যন্ত আগুনের প্রচন্ড উত্তাপ ও ধোঁয়া ছড়িয়ে পড়ায় আমরা গৃহবন্দি হয়ে পড়েছিলাম। আগুনে আবাসনের দরজা গুলি প্রায় পুড়ে গিয়েছে। সময়মতো আগুন নিয়ন্ত্রণ না করা গেলে হয়তো ঘরের ভেতরে আগুন ছড়িয়ে জীবনহানির মত ঘটনা ঘটতো।” দমকল বাহিনী জানিয়েছে, আবাসনের ক্ষতি হলেও আবাসনের বসবাসকারী মানুষজন কেউ আহত হয়নি। অনুমান ইলেকট্রিক শর্টসার্কিটের কারণে অগ্নিকান্ড ঘটেছে।”

Related Articles

Back to top button
Close