fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

গৃহবধূ খুনের কোনও কিনারা না হওয়ায় পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ পরিবারের সদস্যরা

নিজস্ব সংবাদদাতা দিনহাটা: এক গৃহবধূ খুনের ঘটনায় কোনও কিনারা না হওয়ায় পুলিশ প্রশাসনের দ্বারস্থ হল পরিবারের লোকেরা। অবিলম্বে অভিযুক্তকে গ্রেফতারের দাবিতে দিনহাটা মহকুমা পুলিশ আধিকারিক ও দিনহাটা পুরসভার প্রশাসক বিধায়ক উদয়ন গুহর  কাছে আবেদন জানাল ওই গৃহবধূর স্বামী সহ বাড়ির লোকেরা। মঙ্গলবার গৃহবধূর ভাই দিলীপ সাহা,স্বামী অনুপ সাহা সহ অন্যান্যরা বিধায়ক উদয়ন গুহর সঙ্গে দেখা করে  তার কাছেও খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে গ্রেফতারের জন্য পুলিশ প্রশাসনকে পদক্ষেপ নেওয়ার দাবি জানান।

এরপর তারা দিনহাটা মহকুমা পুলিশ আধিকারিক  মানবেন্দ্র দাস এর সঙ্গে দেখা করে তার কাছে খুনের ঘটনায় মূল অভিযুক্তকে অবিলম্বে গ্রেফতারের দাবি জানান। গৃহবধূর পরিবারের লোকেরা অভিযুক্তকে অবিলম্বে গ্রেফতার ছাড়াও দৃষ্টান্তমূলক শাস্তির দাবিতে পুলিশ আধিকারিকের কাছে আবেদন জানান। পুলিশ সূত্রে অবশ্য জানা গেছে গৃহবধূকে খুনের ঘটনায় যথাযথ তদন্ত চলছে।

[আরও পড়ুন- প্রধানমন্ত্রীর জন্মদিন উপলক্ষে রক্তদান শিবিরের উদ্বোধন করলেন নবারুন নায়েক]

উল্লেখ্য  দিনহাটা শহরের ১৩ নম্বর ওয়ার্ডের  সাহেবগঞ্জ রোডে গত ৮  সেপ্টেম্বর দিন দুপুরে নিজের বাড়িতেই গৃহবধূ তনুজা সাহা খুন হন। এক যুবক ওই গৃহবধূকে ফোন করে বলে অভিযোগ। টনার পর ওই বাড়ি থেকেই এক যুবককে রক্তাক্ত অবস্থায় বের হয়ে যেতে দেখেন প্রতিবেশীরা। ওই যুবকের সঙ্গে পরিবারের আগে থেকেই পরিচয় ছিল বলেও পুলিশ সূত্রে জানা গিয়েছে। ওই যুবক রক্তাক্ত অবস্থায় বের হয়ে যাওয়ার পর  প্রতিবেশীরা গৃহবধূকে ডাকাডাকি করলে কোন সাড়া শব্দ না মেলায় তারা গৃহবধূর স্বামী অনুপ সাহাকে খবর দেন। তার স্বামী অন্যান্য প্রতিবেশীরা ছুটে আসে। খবর পেয়ে পুলিশ সেখানে ছুটে যায়। ঘর খুলে দেখে মহিলার রক্তাক্ত মৃতদেহ ঘরের ভিতরে পড়ে রয়েছে।এরপর মূল পুলিশ সেই মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়না তদন্তে পাঠায়।

এই বিষয়ে মহকুমা পুলিশ আধিকারিক মানবেন্দ্র দাস বলেন যে, ওই গৃহবধূকে খুন করা হয়েছে। খুনের ঘটনায় পুলিশি তদন্ত চলছে। খুব শীঘ্রই অভিযুক্তকে গ্রেফতার করা সম্ভব হবে।

 

Related Articles

Back to top button
Close