fbpx
কলকাতাহেডলাইন

ভর্তির দিনেই কলকাতা মেডিক্যালে মৃত্যু হাওড়ার বাসিন্দার, পাঁচদিন বাঁচিয়ে রাখল হাসপাতালের হেল্পলাইন!

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: কখনও সরকারি হাসপাতাল থেকে রোগী উধাও হয়ে যাচ্ছে, আবার কখনও করোনা মুক্ত রোগীকে ছাড়াতে গিয়ে দেহ মিলছে হাসপাতালের মর্গে। ঠিক সেই ভাবেই করোনা সন্দেহে রোগীকে ভর্তি করে ৫ দিন হেল্প লাইনে তিনি সুস্থ জেনে পরে পরিবারের লোকেরা জানতে পারলেন, ওই ব্যক্তির মৃত্যু হয়েছে ভর্তির দিনই। জানা গিয়েছে, মৃত ব্যক্তি হাওড়ার সলপের বাসিন্দা। মৃতের নাম অজয় মান্না। বয়স ৬৮ বছর। পরিবারের দাবি, হেল্প লাইনে পাঁচদিন ধরে রোগীর ‘সুস্থ’ থাকার খবর হাসপাতালের তরফে। এরপর হাসপাতালে এসে মৃত্যুর খবর পায় পরিবার।

পরিবারের দাবি, ক্যান্সারে আক্রান্ত ছিলেন ওই ব্যক্তি। গত ৯ জুলাই বৃহস্পতিবার অস্ত্রোপচাররে জন্য তাঁকে এসএসকেএম হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়। জ্বর থাকায় করোনা সন্দেহে তাঁকে কোভিড হাসপাতাল এম আর বাঙুরে রেফার করা হয়। কিন্তু বেড নেই জানিয়ে, ওই ব্যক্তিকে কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়। সেখানে দুপুর ১টা নাগাদ অজয় মান্নাকে করোনা সন্দেহে ভর্তি নেওয়া হয়।

আরও পড়ুন: হেমতাবাদের বিজেপি বিধায়কের মৃত্যুর ঘটনায় ধৃত ১, চলছে আরও একজনের সন্ধান

কোভিড ওয়ার্ডে সাধারণ মানুষের ঢোকা নিষেধ। তাই রোগীকে দেখতে যেতে পারেননি পরিবারের লোকজন। কিন্তু অভিযোগ, হাসপাতালের হেল্পলাইনে ফোন করলেই রোগী ভাল আছেন।  কিন্তু মঙ্গলবার, গ্রিন বিল্ডিংয়ের পাঁচ তলায় রোগীর বেডে পৌঁছে যান তাঁর ছেলে। গিয়ে দেখেন, বেড খালি, বাবা সেখানে নেই। পরে জানতে পারেন, ভর্তির দিনই দুপুর ৩টেয় মারা যান ওই ব্যক্তি। বারবার এই হাসপাতালেই এরকম ভুল হচ্ছে কেন, এমন প্রশ্ন তুলেছে মৃতের পরিবার।

Related Articles

Back to top button
Close