fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

২৫ কিমি দূর এসে গড়বেতায় আত্মহত্যা হুগলির ছাত্রীর! তদন্তে নেমেছে পুলিশ

তারক হরি. পশ্চিম মেদিনীপুর : ঘটনাটি ঘটেছে পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গড়বেতায়। রবিবার সকালে গড়বেতার তিলডাঙা এলাকায় মজুরডোমার জঙ্গলে একটি গাছে ঝুলন্ত অবস্থায় একটি কিশোরীর মৃতদেহ দেখতে পেয়ে হতবাক স্থানীয় বাসিন্দারা! দেখেন গলায় ওড়নার ফাঁস লাগিয়ে ঝুলছে,তার থুতনির কাছে রয়েছে মাস্ক। অদুরেই রয়েছে সাইকেল আর বইয়ের ব্যাগে ক্লাশ ইলেভেনের বই। এই ঘটনায় বাসিন্দারাই খবর দেন পুলিশকে, খবর পেয়ে সন্ধিপুর পুলিশ ফাঁড়ি থেকে পুলিশ এসে মৃতদেহ উদ্ধার করে নিয়ে যায় ময়না তদন্তের জন্য।

পুলিশ সূত্রে জানা যায় মৃত ছাত্রীর নাম রিম্পা প্রামাণিক (১৭)। বাড়ি হুগলি জেলার গোঘাট থানার পাণ্ডুগ্রামের মামুদপুরে। ঘটনাস্থল থেকে মৃত ছাত্রীর বাড়ি প্রায় ২৫ কিলোমিটার দূরে। বইয়ের ব্যাগ থেকে পাওয়া মোবাইল ও নাম ঠিকানা পাওয়ার পরই ছাত্রীর পরিচয় সম্পর্কে নিশ্চিত হয়েছে পুলিশ। পরে মৃতদেহ উদ্ধার করে ময়নাতদন্তের জন্য মেদিনীপুর মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মর্গে পাঠায়।

এরপরই গড়বেতা পুলিশ বিষয়টি জানায় মেদিনীপুর পুলিশ লাইনে। পাশাপাশি পুলিশ খবর পাঠায় গোঘাট থানায় এবং ছাত্রীর বাড়িতে। প্রাথমিক ভাবে অনুমান করা হচ্ছে ঘটনার পেছনে প্রেম ঘটিত বিষয় রয়েছে। পুলিশ গোঘাট থানা সূত্রে জানতে পেরেছে রিম্পা গোঘাটেরই একটি স্কুলের একাদশ শ্রেণির ছাত্রী। শনিবার গ্রামের বাড়ি থেকে সাইকেল ও বইয়ের ব্যাগ নিয়ে টিউশন পড়তে যাওয়ার উদ্দেশ্যে বেরিয়েছিল। রাতে সে আর বাড়ি ফেরেনি। পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার গড়বেতার পাশেই হুগলির গোঘাট এলাকা।

আরও পড়ুন: বামফ্রন্টের পক্ষ থেকে মাস্ক ও স্যানিটাইজার বিতরণ হাড়োয়ায়

এখানে প্রশ্ন হচ্ছে কেন ওই ছাত্রী ২৫কিলোমিটার দুরে গড়বেতা থানা এলাকায় এল? আর কেনই বা সুইসাইড করল, বা  আদৌও সুইসাইড করেছে কিনা তা রীতিমতো একটা রহস্য।  কিশোরী যদি প্রেম করে থাকে তবে কি তার প্রেমিক এই এলাকারই? কিশোরী কি প্রেমের ফাঁদে পড়েছিল, সে কী নিদারুণ ভাবে প্রতারিত হয়েছিল? ইত্যাদি এই সব নানান প্রশ্নের উত্তর খুঁজছে পুলিশ। পুলিশের ধারনা উদ্ধার হওয়া মোবাইল ফোনটি থেকে অনেক রহস্যের সন্ধান পাওয়া সম্ভব। পাশাপাশি ময়নাতদন্তের রিপোর্ট হলে ঘটনা সমন্ধে অনেকটা পরিষ্কার জানা যাবে।

আপাতত একটি অস্বাভাবিক মৃত্যুর মামলা রুজু করে তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। অন্যদিকে গোঘাট ও গড়বেতা থানা একযোগে এই ঘটনাটির তদন্তের জন্য স্থানীয়ভাবে আরও বেশ কিছু সূত্রের অনুসন্ধানে নেমেছে। খুব শীঘ্রই এই রহস্যের উন্মোচন হবে বলে আশা প্রকাশ করেছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close