fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

১০০ দিনের কাজে যোগ দিতে গিয়ে আক্রান্ত স্বামী-স্ত্রী, অভিযোগ তৃণমূলের দিকে

গোপাল রায়, আরামবাগ: ১০০ দিনের কাজে যোগ দিতে গিয়ে এক মহিলা সহ এক ব্যক্তিকে মারধরের অভিযোগ উঠল তৃণমূলের বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে আরামবাগ থানার অন্তর্গত মলয় পুর গ্রাম পঞ্চায়েতের কেশবপুর এলাকায়। ঘটনায় কনিকা মালিক ও তাঁর স্বামী সাহেব মালিক সহ তার শিশু আহত হয়। জানা গেছে, শনিবার সকালে স্বামী-স্ত্রী ১০০ দিনের কাজে গিয়েছিল সেই সময় সাহেব মালিককে তৃণমূলের লোকজন মারধর করতে দেখে স্ত্রী কনিকা ছাড়াতে গেলে তাকেও ব্যাপক ভাবে মারধর করে। সেই সময় তার কোলে বাচ্চা থাকায় ওই মহিলাকে ঠেলে ফেলে দিলে শিশু আহত হয়।পরে গিয়ে শিশুটিও আহত হয়।

সাহেব মালিকের অভিযোগ, আমরা বিজেপি করছি বলে আমাদের মারধর করেছে তৃণমূল। আমরা গতকাল দিন দয়াল উপাধ্যায় এর জন্মদিন উপলক্ষে পতাকা তুলে ছিলাম এরপর তৃণমূলের লোকজন রাতে বাড়িতে খুজতে গেছিল আমাদের পায়নি এরপর আজ সকালে ১০০ দিনের কাজে যাওয়ার সময় আমাকে ডেকে মারধর করতে শুরু করে। আমার স্ত্রী বাঁচাতে গেলে তাঁকেও মারধর করে। এরপর আহতদের বিজেপি কর্মী সমর্থক আরামবাগ জেলা বিজেপির পার্টি অফিসে নিয়ে আসে। তারপর তাঁদের নিয়ে যাওয়া হয় আরামবাগ হাসপাতালে।

এই ঘটনায় আরামবাগ বিজেপির জেলা সাংগঠনিক সভাপতি বিমান ঘোষ বলেন, বর্তমানে যে সরকার চলছে এদের কাছে মহিলা শিশু বলে কিছু নেই। জঙ্গলের পশুরা যেমন ব্যবহার করে তেমনি করছে এরা আর তিন চার মাস এদের মেয়াদ। এই ঘটনায় থানায় অভিযোগ দায়ের করা হবে বলে জানান বিমান ঘোষ।

Related Articles

Back to top button
Close