fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশশিল্প-বাণিজ্যহেডলাইন

নয়াদিল্লির নিষেধাজ্ঞার মুখে Huawei? ভারতে 5G কাঠামো গড়লে বাড়ত আর্থিক নিয়ন্ত্রণ, উদ্বিগ্ন বেজিং

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্কঃ  এবার 5G ধাক্কা দিল ভারত। ভারত ও চিনের সঙ্গে উত্তেজনা  যত বাড়ছে ততই যেন কড়া পদক্ষেপের পথে হাঁটছে মোদি সরকার। রবিবারই প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি তাঁর ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী মোদি ভারত-চিন উত্তেজনার বিষয়ে বলেন, “লাদাখে ভারতের দিকে যারা চোখ তুলে তাকিয়েছে তারা যোগ্য জবাব পেয়েছে। ভারত যদি বন্ধুত্ব করতে জানে, তবে কীভাবে পাল্টা চ্যালেঞ্জ জানানো উচিত সেটাও জানে।” এবার যেন তাই সেই জবাব দেওয়ার রাস্তাতেই হাঁটছে ভারতে। অর্থনৈতিকভাবে চিনকে ধাক্কা দিতে ভারতে যেসব চাইনিজ অ্যাপ ব্যবহার করা হচ্ছিল সেগুলো নিষিদ্ধ করার ঘোষণা করে ভারতের তথ্য় প্রযুক্তি মন্ত্রক। এবার 5G নিয়েও কড়া সিদ্ধান্ত নেওয়ার ভাবনা কেন্দ্রের। ভারতে 5G পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত বিভিন্ন যন্ত্রপাতি সরবরাহ করতে আগ্রহী চিনা সংস্থা huwai। আদৌ এই পরিস্থিতিতে ওই চিনা সংস্থাকে যন্ত্র সরবরাহের বরাত দেওয়া হবে কিনা তা নিয়ে আলোচনা করতেই বৈঠকে বসেন স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ, বিদেশমন্ত্রী এস জয়শঙ্কর বাণিজ্যমন্ত্রী পীযূষ গয়াল এবং যোগাযোগমন্ত্রী রবি শঙ্কর প্রসাদ। একটি সূত্র এই বৈঠক সম্পর্কে জানিয়েছে, 5G পরিষেবার সরঞ্জাম সরবরাহের বিষয় নিয়েই আলোচনা করেন তাঁরা।

 

গত বছর ভারতে 5G পরিষেবার পরীক্ষামূলক প্রকল্পে অংশ নেওয়ার বিষয়ে চিনা সংস্থা হুয়াইকে অনুমতি দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু মার্কিন যুক্তরাষ্ট্র ক্রমাগতই এই চিনা সংস্থাকে এসবের বাইরে রাখার জন্যে চাপ দিচ্ছে। আপাতত ভারতে 5G নিলাম এক বছরের জন্যে পিছিয়ে গেছে। এদিকে মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রে ২০২১ সালের মে মাস পর্যন্ত হুয়াইয়ের সমস্ত দ্রব্য নিষিদ্ধ করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, হুয়াইয়ের ভারতে বিনিয়োগ নিয়ে বহুদিন ধরই জলঘোলা চলছিল ভারত-মার্কিন সম্পর্কের মধ্যে। বিনিয়োগটি  যাতে না হয় তারজন্য বিভিন্ন ভাবে ভারতের সঙ্গে দর কষাকষি চালাচ্ছিল  ডোনাল্ড ট্রাম্প প্রশাসন। তবে ভারতে হুয়াইয়ের বিনিয়োগ কতটা সম্ভব তা নির্ভর করছে  আজকের  বৈঠকে।

Related Articles

Back to top button
Close