fbpx
অন্যান্যআন্তর্জাতিকপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিদেশের মাটিতে পাড়ি দিল কৃষ্ণনগরের দুর্গা প্রতিমা

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস, কৃষ্ণনগর : মাটির পুতুলের শহর কৃষ্ণনগর। রাষ্ট্রপতি পুরস্কার প্রাপ্ত একাধিক মৃৎশিল্পীর বাস এই কৃষ্ণনগর শহরে। এখানকার মৃৎশিল্পীদের সুনাম সারা বিশ্বে সমাদৃত। করোনা আবহে এবছর এই শিল্পের সঙ্গে যুক্ত কলাকুশলীদের মন ভারাক্রান্ত।পুজো হবে ঠিকই কিন্তু উদ্দোক্তাদের বাজেট এবার কম, ফলে তার প্রভাব পড়ছে এই শিল্পে। তবুও এবছর অন্যান্য বারের মতো বিদেশের মাটিতে পাড়ি দিচ্ছে কৃষ্ণনগর শহর থেকে বেশকিছু প্রতিমা।

 

ইতিমধ্যেই কৃষ্ণনগর ঘূর্নির পুতুলপট্টিতে সাজো সাজো রব।ফাইবার গ্লাসের তৈরি চাঁলা সমেত ছয় ফুটের একটি প্রতিমা প্লাইউডের বাক্সে থার্মোকল সহযোগে প্যাকেট জাত করে বাক্সবন্দী অবস্থায় ক্যুরিয়ার সার্ভিসের মাধ্যমে মেক্সিকোর উদ্দেশ্যে পাড়ি দিয়েছে।ফাইবারের তৈরি এই দুর্গা প্রতিমা টি তৈরি করেছেন, কৃষ্ণনগরের বিখ্যাত মৃৎশিল্পী শংকর পাল। এই প্রতিমাটি বিক্রি হয়েছে দেড় লক্ষ টাকায়।তিনি জানালেন,প্রতিমাটি তৈরি করতে সময় লেগেছে তিন মাস। তিনটি স্তরে এই বিগ্ৰহটি তৈরি করা হয়েছে।

আরও পড়ুন: প্রাক্তন কেন্দ্রীয় মন্ত্রী যশবন্ত সিংয়ের প্রয়াণে শোকস্তব্ধ রাষ্ট্রপতি রামনাথ কোবিন্দ

প্রথমে মাটির কাজ,তারপর প্লাস্টার অব প্যারিসের ছাঁচের কাজ এবং সব শেষে ফাইবার গ্লাসের কাজ,এই ভাবেই পুরো প্রক্রিয়াটি সম্পন্ন করতে হয়। ঘুর্ণি র অপর দুই শিল্পী, সম্পর্কে এরা দুই ভাই সুদীপ্ত পাল এবং জয়ন্ত পাল,এদের ও একটি প্রতিমা এ বছর বিদেশে পাড়ি দিচ্ছে। আড়াই ফুট লম্বা, তিন ফুট চওড়া প্রতিমাটি আয়রন সিটের বাক্সে বিশেষ ভাবে প্যাকেট জাত করে পাঠানো হচ্ছে ইউরোপ মহাদেশে।এ বছর মুম্বাই, দিল্লি, ব্যাঙ্গালোর সহ ভিন রাজ্যে কম বেশি পনেরো টির ও বেশি প্রতিমা পাঠানো হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close