fbpx
কলকাতাপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

ঈদে বাড়িতেই নমাজ পড়ার আর্জি ইমামদের, দ্রুত কুরবানীর কাজ সম্পন্ন করার আহ্বান জমিয়ত নেতা মাদানীর

মোকতার হোসেন মন্ডল: করোনার ভাইরাসের মধ্যেই শনিবার পবিত্র ঈদুল আজহা। আর এই সময় বাড়িতেই নমাজ পড়ার আর্জি জানাচ্ছেন ইমামরা। এদিকে দ্রুত কুরবানীর কাজ সম্পন্ন করার আবেদন জানিয়েছেন জমিয়তে উলামায়ে হিন্দের সর্বভারতীয় সভাপতি মাওলানা আরশাদ মাদানী। ফুরফুরা দরবার শরিফের পীরজাদা ত্বহা সিদ্দিকী মুসলিমদের উদ্দেশ্যে আবেদন জানিয়ে বলেন, ‘‘হাতজোড় করে বলছি, যেমন ভাবে বাড়িতে থেকে ঈদুল ফিতর পালন করেছিলেন, ঠিক একই ভাবে এবারও ইদুজ্জোহা পালন করুন।’’

পীরজাদা ঈদের দিন জাতি ধর্ম নির্বিশেষে সকলকে ঐক্য রক্ষার আবেদন জানান। সেই সঙ্গে করোনা মুক্তির জন্য আল্লাহর কাছে দোয়া করার বার্তা দেন। নাখোদা মসজিদের ইমাম শফিক কাশেমি বলেন,‘‘ সরকারের বিধি মেনে মসজিদে নমাজ হবে। সকলকে অনুরোধ, মসজিদে ভিড় করবেন না।’’

এদিকে কলকাতার ধর্মতলার টিপু সুলতান মসজিদের হাফিজ হারুন রশিদ বলেন, ‘‘ইদুজ্জোহার নমাজে একসঙ্গে ২৫ জনের বেশি ঢুকতে দেওয়া হবে না। নমাজ পড়ার সময়ে মাস্ক পরতেই হবে।’’ ওয়াকফ বোর্ডের চেয়ারম্যান জানান, ইদুজ্জোহায় বাড়িতে থেকে নমাজ পড়তে রাজ্যের ৬০ হাজার মসজিদে নোটিস পাঠানো হয়েছে। সংশ্লিষ্ট জেলাশাসক এবং ব্লক অফিসের মাধ্যমে তা প্রতিটি মসজিদে পৌঁছে দেওয়া হচ্ছে। কোনও মাঠে বা ইদগায় ভিড় করে নমাজ পড়া যাবে না।’’জামায়াতে ইসলামী হিন্দের রাজ্য সভাপতি মাওলানা আব্দুর রফিকও সতর্কতার সঙ্গে ঈদ পালনের কথা বলেন।

[আরও পড়ুন- ধর্মীয়স্থান দখল করার অভিযোগ, বিডিও অফিস ঘেরাও করে আদিবাসীদের বিক্ষোভ]

ছাত্র সংগঠন এসআইও একই বার্তা দিয়েছে। কলকাতার রেড রোডে ইদের জামাতের ইমামকারী ফজলুর রহমানের মন্তব্য ‘‘আমরা নিজেরা সচেতন হলেই এই অতিমারিকে হারাতে পারি। তাই সকলকে বলতে চাই, যাঁরা অসুস্থ এবং প্রবীণ, তাঁরা বাড়িতে থেকে নমাজ আদায় করুন। মসজিদে ভিড় করবেন না। আর মসজিদে এলেও অবশ্যই মাস্ক পরবেন। দূরত্ব-বিধি বজায় রাখবেন।’’

শুধু পশ্চিমবঙ্গ নয়, সারা ভারতের মুসলিমদের উদ্দেশ্যে একই রকম বার্তা দিয়েছেন ইমাম ও মাওলানারা। জমিয়তের সভাপতি মাওলানা আরশাদ মাদানী বলেন, করোনা ভাইরাস মহামারিজনিত কারণে সৃষ্ট ঝুঁকির পরিপ্রেক্ষিতে কোভিড-১৯ মহামারির বিষয়ে কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্য মন্ত্রকের সমস্তু নির্দেশনা মেনে ঈদ-উল-আযহা উদযাপন বা পালন করতে হবে। মাওলানা মাদানি মসজিদ গুলিতে বা ঘরে বসে সকল সামাজিক দুরত্বের নিয়ম মেনে এবং স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয়ের জারি করা নির্দেশাবলি অনুসরণ মুসলমানদের ঈদ-উল-আযহার নামায পড়ার পরামর্শ দিয়েছেন। পাশাপাশি সুর্যোদয়ের ২০ মিনিটের পর পরই অবিলম্বে এবং অল্প সময়ের মধ্যে খুতবা ও নামাজ পড়ার সঙ্গে সঙ্গেই পশু কুরবানি করার তাগিদ দিয়েছেন জমিয়ত সভাপতি মাওলানা আরশাদ মাদানি। এদিকে ঘরে ঘরেই ঈদ পালনের জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছে মুসলিম সমাজ। পরিবারে নেমে এসেছে খুশি।

 

Related Articles

Back to top button
Close