fbpx
আন্তর্জাতিকবাংলাদেশহেডলাইন

ইতিহাস কি ভুলে গেল বাংলাদেশ? ‘পাক-টেলিফোন’ কূটনীতিতে জল্পনা, অস্বস্তিতে হাসিনা

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: পাক প্রধানমন্ত্রী ইমরান খানের টেলিফোনে কথোপকথন নিয়ে ঘরেই বেকায়দায় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা৷ ইতিমধ্যেই টেলিফোনে কূটনীতির জেরে বাংলাদেশ এবং পাকিস্তানের কাছাকাছি আসা নিয়ে জোর চর্চা শুরু হয়৷ যদিও এমন জল্পনা শুরু হতেই রীতিমতো চাপে পড়ে গিয়েছেন হাসিনা৷

কারণ পাকিস্তানের সঙ্গে কোনওরকম সুসম্পর্কের বিরোধী বাংলাদেশের সিংহভাগ মানুষ৷ খোদ বাংলাদেশের আব্দুল মোমিন পাকিস্তানের সঙ্গে কোনওরকম সুসম্পর্কের সম্ভাবনা খারিজ করে দিয়েছেন৷

হাসিনা মন্ত্রিসভার গুরুত্বপূর্ণ সদস্য মোমিন জানিয়েছেন, পাকিস্তানের প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে নেহাত সৌজন্যমূলক কথাবার্তা বলেছেন হাসিনা৷ করোনা সংক্রমণ এবং বাংলাদেশের বন্যা পরিস্থিতি নিয়ে খোঁজ নিতেই হাসিনাকে ফোন করেছিলেন ইমরান৷ এর মধ্যে অন্য কোনও মানে খোঁজা উচিত নয়৷

বাংলাদেশ বিদেশ মন্ত্রকের পক্ষ থেকে জানানো হয়েছে পাকিস্তানের সঙ্গে বাংলাদেশের সম্পর্ক বন্ধুত্বপূর্ণ হতে পারে না কারণ বাংলাদেশের ৩০ লক্ষ নারীকে হত্যা করেছে পাকিস্তান। ভূলুণ্ঠিত হয়েছে হাজারো নারী সম্মান। সত্তরের দশকের সেই ভয়ানক বর্বরতার কথা কোনদিনও ভুলতে পারবে না বাংলাদেশ ‌।

সেই অপরাধের জন্য আজও ক্ষমা চায়নি ইসলামাবাদ। বর্তমানে বাংলাদেশ পাকিস্তান সম্পর্কে তো তাই খারাপ যে তাদের পক্ষে দ্বিপাক্ষিক চুক্তি দূর অস্ত দ্বিপাক্ষিক বৈঠক পর্যন্ত হয় না শুধুমাত্র আন্তর্জাতিক সম্মেলন ছাড়া।

অন্যদিকে বঙ্গবন্ধু মুজিবুর রহমান হত্যা কারী রাশেদ চৌধুরীকে হস্তান্তরের প্রক্রিয়া ইতিমধ্যেই শুরু করেছে আমেরিকা।

তৎকালীন বাংলাদেশের স্বাধীনতাকামী মানুষদের বিরোধী শিবিরের অন্যতম ব্যক্তি ছিলেন রাশেদ চৌধুরী। বাংলাদেশ যদি মার্কিন যুক্তরাষ্ট্রের হাত থেকে তাকে পেয়ে যায় এবং তার কি শাস্তি হতে পারে সেদিকেও ইতিমধ্যে ভাবিয়ে তুলেছে পাকিস্তানকে। তাই সব মিলিয়ে এই পাকিস্তানি কৌশলকে বাঁকা চোখে দেখছে বাংলাদেশিরা। ফলে স্বাভাবিকভাবেই ফোনালাপে কিছুটা অস্বস্তিতে পড়েছে হাসিনা সরকার।

Related Articles

Back to top button
Close