fbpx
দেশহেডলাইন

ফের উত্তপ্ত উপত্যকা, নিরাপত্তারক্ষীদের গুলিতে নিকেশ ২ জঙ্গি

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্কঃ ফের উত্তপ্ত হয়ে উঠল উপত্যকা। আবারও এনকাউন্টার শুরু হল জম্মু ও কাশ্মীরের অনন্তনাগে। নিরাপত্তা রক্ষীদের সঙ্গে সংঘর্ষে মৃত্যু হল দু জন জঙ্গির বলে খবর। সোমবারের পর মঙ্গলবার। ফের সন্ত্রাসবাদীদের সঙ্গে তীব্র গুলিবিনিময় নিরাপত্তা বাহিনীর। গোপন সূত্রে খবর পেয়ে মঙ্গলবার ভোররাতে ওয়াঘামা এলাকায় অভিযান চালায় জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ ও সেনার যৌথ বাহিনী। প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত চলছে তীব্র গুলির লড়াই।

 

             আরও পড়ুনঃ ফিরতে চলেছে ২৬/১১ স্মৃতি! গভীর রাতে পাকিস্তানের নম্বর থেকে হুমকি

 

উল্লেখ্য, সোমবারই অনন্তনাগে সন্ত্রাস বিরোধী অভিযানে জম্মু-কাশ্মীরে বড় সাফল্য পায় বাহিনী। সেনা-গুলির সংঘর্ষে লড়াইয়ে নিকেশ হয় ৩ জঙ্গি। এদের মধ্যে একজন হিজবুল মুজাহিদ্দিনের কমান্ডার রয়েছে রয়েছে বলে জানায় পুলিশ। দক্ষিণ কাশ্মীর জেলার খুলচোহার এলাকায় এনকাউন্টারে মৃত্যু হয় সন্ত্রাসবাদী সংগঠন হিজবুল মুজাহিদিনের কম্যান্ডার মাসুদ আহমেদ ভাটের। মৃত্যু হয়েছে আরও দুই সন্ত্রাসবাদীর। মাসুদের মৃত্যুর ফলে জম্মু এলাকার ডোডা জেলার পুরোটাই সন্ত্রাসের কবল থেকে মুক্ত হয়েছে বলে দাবি করেছে প্রশাসন। হিজবুল মুজাহিদিন কম্যান্ডার মাসুদ আহমেদ ভাটই ডোডা জেলার শেষ বড় সন্ত্রাসবাদী ছিল বলে জানিয়েছে প্রশাসন। এই অভিযান মিলিত ভাবে চালায় ভারতীয় সেনা, জম্মু-কাশ্মীর পুলিশ এবং সিআরপিএফ।

 

 

 আরও পড়ুনঃ চিন সরকারের কাছে TikTok ব্যবহারকারী ভারতীয়দের কোনও তথ্য নেই! সাফাই প্রধানের

 

সন্ত্রাসবাদীদের থেকে একটি একে রাইফেল উদ্ধার হয়েছে। হিজবুল কম্যান্ডার মাসুদ আহমেদ ভাট ছাড়া আরও দুই লস্কর-ই-তৈবার সদস্য়ের মৃত্যু হয় এনকাউন্টারে। সোমবার গোপন সূত্রে খবর আসে যে, অনন্তনাগের খুলচোহার এলাকায় কয়েকজন সন্ত্রাসবাদী লুকিয়ে রয়েছে। এরপরই জম্মু ও কাশ্মীর পুলিশ ও সেনাবাহিনী মিলে যৌথ অভিযান চালায়। সন্ত্রাসবাদীরা কোনঠাসা হওয়ার পর এলোপাথাড়ি গুলি চালাতে শুরু করলে পালটা গুলি ছোড়ে বাহিনীও। তীব্র গুলিবিনিময়ে মৃত্যু হয় তিনজন সন্ত্রাসবাদীর।

Related Articles

Back to top button
Close