fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

জুলাই মাসের প্রথম থেকে ধাপে ধাপে খুলতে চলছে বিশ্বভারতী

নিজস্ব সংবাদদাতা, বোলপুর: জুলাই মাসের শেষ থেকে ধাপে ধাপে খুলতে চলছে বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়। মাধ্যমিক পরীক্ষার পাশাপাশি স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ফাইনাল ইয়ারের ছাত্রছাত্রীদের আগামী ২৮ জুন থেকে ১ জুলাইয়ের মধ্যে বিশ্বভারতীতে যোগ দিতে বলা হয়েছে। প্রাথমিক ভাবে তাঁদের কয়েক দিন ক্লাস হওয়ার পর পরীক্ষা নেওয়া হবে। বাকি ছাত্রছাত্রীদের ক্লাসের বিষয়ে পরিস্থিতি অনুসারে পরিবর্তীতে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।

 

 

করোনা সংক্রমণ রুখতে দেশজুড়ে লকডাউনের জেরে প্রায় দু’মাসের বেশি বন্ধ দেশের সমস্ত শিক্ষা প্রতিষ্ঠান। বন্ধ ছিল বিশ্বভারতী বিশ্ববিদ্যালয়ও। এর মধ্যে পরিস্থিতি স্বাভাবিক হতেই মুলতুবি হয়ে যাওয়া বা ফাইনাল ইয়ারের পরীক্ষাগুলি নেওয়ার সিদ্ধান্ত নিয়েছে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ। মঙ্গলবার বিশ্বভারতীর দেওয়া নোটিফিকেশন থেকে জানা গিয়েছে, স্নাতক এবং স্নাতকোত্তর ফাইনাল ইয়ারের ছাত্রছাত্রীদের ২৮ জুন থেকে ১ জুলাই এর মধ্যে বিশ্ববিদ্যালয়ে আসতে হবে। যাঁরা অনলাইন ক্লাস করেননি, তাঁদের জন্য ২ জুলাই থেকে ২৭ জুলাই নিজ নিজ বিভাগে ক্লাস হবে। পরীক্ষার প্রস্তুতির জন্য ১৭ থেকে ২১ জুলাই পর্যন্ত ছুটি থাকবে এবং ২২ জুলাই থেকে ৫ আগষ্ট পর্যন্ত পরীক্ষা হবে। একই ভাবে বিশ্বভারতী বোর্ডে মাধ্যামিক পরীক্ষা শুরু হচ্ছে ১০ জুলাই থেকে। চলবে ২৫ জুলাই অবধি। এর মধ্যে বিশ্বভারতীতে গ্রীষ্মের ছুটি পড়ছে ১১ থেকে ২০ জুন পর্যন্ত।

 

 

এদিকে, আলাদা নোটিফিকেশনে উল্লেখ করা হয়েছে, যে সব ছাত্রছাত্রী, অধ্যাপক, কর্মী বাড়ি থেকে বিশ্ববিদ্যালয়ে ফিরবেন, তাঁদের বিশ্বভারতীর পিয়ারসন মেমোরিয়াল হাসপাতালে শারীরিক পরীক্ষা আবশ্যক। অঃ ছাড়া প্রতিটি ক্লাসরুম স্যানিটাইজড করা হবে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই শুরু হবে ক্লাস।

 

 

অন্যদিকে, লকডাউনের সময় কেন্দ্রীয় সরকারের মানবসম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রক যে নির্দেশ দিয়েছিল, তা বিভিন্ন ক্ষেত্রে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ লঙ্ঘন করেছে বলে অভিযোগ করল বিশ্বভারতীর অধ্যাপক সংগঠন ভিবিউফা। এই নিয়ে তাঁর বিশ্বভারতীর পরিদর্শক তথা রাষ্ট্রপতিকে চিঠি দিয়েছে। চিঠিতে অভিযোগ করা হয়েছে, মন্ত্রক মিটিং বা ভিডিও কনফারেন্স বন্ধ করতে বলেছে, সেখানে বিশ্বভারতী কর্তৃপক্ষ       বিশ্ববিদ্যালয়ে ১০ জনের বেশি লোকজন নিয়ে গ্রন্থাগারে অডিটোরিয়ামে একাধিক মিটিং করেছেন।

 

 

ডাক্তার, বিভাগীয় প্রধানদের নিয়ে বৈঠক হয়েছে মন্ত্রকের নিয়ম ভেঙে। যদিও এই বিষয়ে বিশ্বভারতীর মুখপাত্র অনির্বাণ সরকার কিছু বলতে অস্বীকার করেন।

Related Articles

Back to top button
Close