fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নাবালিকাকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণ, গ্রেফতার অভিযুক্ত

বাবলু প্রামানিক, দক্ষিণ ২৪ পরগনা: হাথরস কান্ড নিয়ে উত্তাল গোটা দেশ । উত্তরপ্রদেশে একের পর এক ধর্ষণের ঘটনায় যোগী সরকারের বিরুদ্ধে সরব বিভিন্ন রাজনৈতিক দল। এমনকি রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় উত্তরপ্রদেশের হাথরস কান্ডে দলিত কন্যা ধর্ষণ ও পুলিশ দিয়ে পুড়িয়ে দেওয়া অভিযোগে কলকাতার রাস্তায় নেমে প্রতিবাদ জানায়। আর তখন এরাজ্যেও নাবালিকাকে তুলে নিয়ে গিয়ে ধর্ষণের ঘটনায় চাঞ্চল্য ছড়াচ্ছে । এমনি চাঞ্চল্যকর ঘটনাটি ঘটেছে শনিবার ভোর রাতে দক্ষিণ ২৪ পরগনার কুলতুলি থানার মেরিগঞ্জ ১ নম্বর গ্রাম পঞ্চায়েতের নোয়াপাড়া গ্রামে।

অভিযোগ, জোর করে তুলে নিয়ে গিয়ে নদীর চরে নাবালিকাকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত। তারপর সেখানেই ওই নাবালিকাকে ফেলে রেখে চলে যায় অভিযুক্ত। এমনকি ঘটনার কথা কাউকে জানালে প্রাণে মারার হুমকিও দেওয়া হয় নির্যাতিতাকে। নদীর চরে অচেতন অবস্থায় নাবালিকাকে পড়ে থাকতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। তাঁরাই পরিবারের লোককে খবর দেন। খবর পেয়ে পরিবারের লোক গিয়ে নির্যাতিতা নাবালিকাকে উদ্ধার করেন।

বর্তমানে জয়নগর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন রয়েছে নির্যাতিতা। পরিবার সূত্রে জানা গিয়েছে, ভোররাতে শৌচালয়ে গিয়েছিল ওই নাবালিকা। সেই সময় নদীতে জাল ফেলতে যাচ্ছিল অভিযুক্ত শামসুল ঘরামি। এরপর নাবালিকাকে একা পেয়ে তার মুখ চাপা দিয়ে জোর করে তাকে নদীর চরে নিয়ে যায়। তারপর সেখানেই ওই নাবালিকাকে ধর্ষণ করে সে। এই ঘটনায় কুলতুলি থানায় অভিযোগ দায়ের করে নির্যাতিতার পরিবার। অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত শামসুল ঘরামিকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ।

Related Articles

Back to top button
Close