fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

স্বামীর বিবাহ বর্হিভুত সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে পুড়িয়ে খুনের অভিযোগ উঠল শ্বশুরবাড়ি বিরুদ্ধে

মিল্টন পাল,মালদা: স্বামীর বিবাহ বর্হিভুত সম্পর্কের প্রতিবাদ করায় স্ত্রীকে কেরোসিন তেল ঢেলে পুড়িয়ে খুনের অভিযোগ উঠল স্বামী সহ শ্বশুরবাড়ি বিরুদ্ধে। ঘটনাটি ঘটেছে মালদার বামনগোলা থানার হরিপুর গ্রামে। মৃতদেহ ময়না তদন্তে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ। পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে,মৃত গৃহবধূর নাম মাম্পি দাস(২৩)। গত দু’বছর আগে মালদা জেলার হবিবপুর থানার বুলবুলচন্ডী এলাকার সোনাডাঙ্গা বাসিন্দা হিরেন সাহার মেয়ের সাথে সামাজিক মতে বিবাহ হয় বামন গোলা থানার নবীন দাসের ছেলে বিভাস দাসের। বিভাস দাস পেশায় প্যান্ডেল মিস্ত্রি। মাম্পির এক বছরের একটি পুত্র সন্তান রয়েছে।

পরিবার সূত্রে জানা যায়,দীর্ঘদিন ধরেই বিভাস দাস স্থানীর এক মহিলার সাথে বিবাহ বর্হিভুত সম্পর্কে জড়িয়ে পড়ে ছিলেন বলে অভিযোগ। এই নিয়ে মাঝে মধ্যেই স্ত্রী মাম্পি প্রতিবাদ করলে তার ওপর অত্যাচার করত। শুক্রবার রাতে ঘটনা বেগতিক দেখে স্ত্রী প্রতিবাদ করে।এরপরএ রাত্রিবেলা বাড়িতে থাকা কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয় স্ত্রীর গায়ে। স্ত্রী চিৎকারে আশেপাশের বাড়ির লোকজন ছুটে আসে।অগ্নিদগ্ধ গৃহবধুকে উদ্ধার করে স্থানীয় মুদিপুকুর গ্রামীণ হাসপাতাল ভর্তি করে।অবস্থার অবনতি হলে সেখান থেকে চিকিৎসার জন্য স্থানান্তর করে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে। শনিবার মৃত্যু হয় ওই গৃহবধূর।

স্বামী বিভাস দাস জানান,মাঝে মধ্যে আমাদের ঝামেলা লেগে থাকত সামান্য কারণে। তবে আমার অন্য কোন সম্পর্ক ছিল না।এদিনও স্ত্রী আমার সাথে ঝামেলা করে গায়ে কেরোসিন তেল ঢেলে আগুন লাগিয়ে দেয়। আমি বাঁচাতে গেলে আমার হাত পা পুড়ে যায়। আমি বর্তমানে মালদা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে ভর্তি রয়েছে।  বামনগোলা থানার পুলিশ সুত্রে জানা গিয়েছে,গৃহবধুর মৃতদেহ ময়না তদন্তের জন্য মালদা মেডিক্যালে পাঠিয়ে ঘটনার তদন্ত শুরু হয়েছে।

Related Articles

Back to top button
Close