fbpx
কলকাতাহেডলাইন

মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান লাইফ সাপোর্টে, তোপ দাগলেন ধনকর

শরণানন্দ দাস, কলকাতা: রাজ্যপালের নিশানায় ফের মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার। রাজ্যের মানবাধিকার পরিস্থিতির অবনতির অভিযোগ করে শনিবার টুইটে কটাক্ষ, ‘ মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যান লাইফ সাপোর্টে।’ রাজ্যপাল এদিন সকালে টুইটে লেখেন, ‘পশ্চিমবঙ্গে সবচেয়ে বড়ো বলি হচ্ছে মানবাধিকার। আর ভোটের সময় তা সবচেয়ে বেশি হয়। বিরোধীদের ভয় দেখানো, আটক করা এখানে ‘ ওপেন সিক্রেট’। আর যে সংস্থা অধিকার রক্ষার দায়িত্বে সেই পশ্চিমবঙ্গ মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানই ‘ লাইফ সাপোর্টে’ থাকা রোগি।’

করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার ধাঁচেই মানবাধিকার ও আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি শুধরোনোর দাওয়াই দিয়েছেন তিনি। একইসঙ্গে এদিনের টুইটে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে নিশানা করে লিখেছেন, ‘রাজভবনসহ সমস্ত প্রতিষ্ঠানকে নপুংসক করার যে চেষ্টা মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের সরকার চালাচ্ছে তাতে সহায়তা করা চলবে না। ক্ষমতার অলিন্দকে দখলদার  এবং গণতন্ত্রের বিপদগুলো থেকে মুক্ত করার জন্য স্যানিটাইজ  করতে হবে। প্রতিষ্ঠান গুলোকে শক্তিশালী করার জন্য পর্যালোচনা চলবে।’

আরও পড়ুন: মাদক মামলায় জেরা দীপিকাকে, এনসিবি-র দফতরে অভিনেত্রী

প্রসঙ্গত সোমবার রাজ্যের আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতি নিয়ে  রাজ্য পুলিশের ডিজিকে তোপ দেগেছিলেন, শোচনীয় আইনশৃঙ্খলা পরিস্থিতির মধ্যে ডিজি উটপাখির মতো বালিতে মুখ গুঁজে রয়েছেন। মঙ্গলবার মুখ্যমন্ত্রীকে টুইটে আক্রমণ করছেন, দেশের সব রাজ্যের কৃষকরা প্রধানমন্ত্রী কিষাণ সম্মান নিধি প্রকল্পের সুবিধা পেলেও এ রাজ্যের কৃষকদের  সেই টাকা পেতে দিচ্ছেন না রাজ্য সরকার। বৃহস্পতিবার অর্থমন্ত্রী অমিত মিত্রকে বিশ্ব বাণিজ্য সম্মেলনের আর্থিক অনিয়মের প্রশ্ন তুলে চিঠি দিয়েছেন। আর এদিন টুইটে মানবাধিকার কমিশনের চেয়ারম্যানকেই আক্রমণ করলেন রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান। এখন দেখার নবান্নের প্রতিক্রিয়া কী হয়!

Related Articles

Back to top button
Close