fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

মণীশ খুনের তদন্তে বিহারে যাচ্ছে পশ্চিমবঙ্গ সিআইডির তদন্তকারীরা, ফাঁসানোর দাবি করছেন অর্জুন সিং

অভীক বন্দ্যোপাধ্যায়, কলকাতা: মণীশ খুনের পরিকল্পনা যে তিন মাস আগে করা হয়েছিল, তা ইতিমধ্যেই জানতে পেরেছেন গোয়েন্দারা। এটাও জানা গিয়েছে, এই পরিকল্পনার জন্য ধৃত নাসির খান সাহায্য নিয়েছিল পটনার জেলে বন্দি আরও এক দুষ্কৃতী সুবোধ সিংয়ের।

 

কিভাবে ওই জেলবন্দি দুষ্কৃতী সাহায্য করেছিল এই হাই-প্রোফাইল খুনের ঘটনায়, তা জানতে এবার বিহারের নালন্দা পাড়ি দিচ্ছেন পশ্চিমবঙ্গের সিআইডি তদন্তকারীদের একটি দল।

এদিকে নৈহাটি ভাটপাড়া সমবায় ব্যাংক দুর্নীতির অভিযোগে শুক্রবার রাতে অর্জুন সিং এর ভাইপো  সঞ্জিৎ সিং ওরফে পাপ্পুকে গ্রেফতারের পর ইতিমধ্যেই ফের রাজনীতিতে শুরু হয়েছে চাঞ্চল্য। যদিও প্রথম খবর রটে গিয়েছিল, মণীশ খুনের ঘটনাতেই তাকে গ্রেফতার করা হয়েছে। তার মধ্যে অর্জুন সিং দাবি করেছেন, মনীশ শুক্ল খুনে এবার তাকে ফাঁসানোর টার্গেট করছে সিআইডি গোয়েন্দারা। যা নিয়ে ইতিমধ্যেই ফিরহাদ হাকিম দাবি করেছেন, সিআইডি ব্যক্তিগত স্বার্থে কিছু করে না।
সিআইডির গোয়েন্দাদের দাবি, মণীশ শুক্ল খুনে ইতিমধ্যেই ৪ জন ধৃতকে জেরা করে বিহারের বাসিন্দা সুবোধ সিংয়ের খোঁজ পাওয়া যায়। এই সুবোধের আত্মীয়ের আবার ফ্ল্যাটও রয়েছে সোদপুরে। ধৃত নাসির খানের সঙ্গে বছর দশেক আগে জেলে পরিচয় হয়েছিল সুবোধের। মণীশ খুনের জন্য সুবোধের সাহায্যেই বিহার থেকে ভাড়াটে খুনির ব্যবস্থা করা হয়। জোগাড় করা হয় আগ্নেয়াস্ত্রও। যদিও টাকা এসেছিল দুবাই থেকে আরও এক রাজনৈতিক প্রভাবশালী নেতার মাধ্যমে।
সূত্রের খবর, সেই কারণে কি ভাবে মণীশ খুনে সুবোধ এই ৪ জনকে সাহায্য করেছিল, জানতে   এবার বিহারের নালন্দা যাওয়ার পরিকল্পনা করেছেন সিআইডি তদন্তকারীরা। ইতিমধ্যেই সেখানে পৌঁছেছে ব্যারাকপুর কমিশনারেটের পুলিশের দল। প্রয়োজনে বিহার পুলিশের সঙ্গে কথা বলে সুবোধকে পশ্চিমবঙ্গে আনার চেষ্টা করা হবে। তারপর তাকে এখানেই জেরার বন্দোবস্ত করা হবে।
অন্যদিকে শনিবার অর্জুন সিংয়ের ভাইপোকে গ্রেফতার করা নিয়ে অর্জুন সিংকে গ্রেফতার করা হলে বিস্ফোরক প্রতিক্রিয়া দেন তিনি। তাঁর কথায়,  মণীশ খুনে আসল ষড়যন্ত্রকারীদের নাম এফআইআরে থাকলেও তারা প্রকাশ্যে ঘুরে বেড়াচ্ছে। শাসকদলের কথামত সব চুনোপুঁটিদের ধরছে পুলিশ। আসলে তৃণমূলের সঙ্গে হাত মিলিয়ে পুলিশ মণীশকে খুন করেছে কিন্তু কেসটাকে এখন ঘুরিয়ে আমাকে ফাঁসানোর চেষ্টা করা হচ্ছে। তবে আমাকে ফাঁসানো এত সহজ হবে  না।’

Related Articles

Back to top button
Close