fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণদেশপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

‘মন কি বাত’-এ ‘দো গজ দোরি, বহত হ্যায় জরুরি’ সতর্কবার্তায় ‘কোভিড ওয়ারিয়ার’ হওয়ার আবেদন মোদির

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা সংক্রমণের বিরুদ্ধে ভারতবাসীকে যেভাবে লড়াই চালাচ্ছে সেই প্রচেষ্টাকে কুর্নিশ জানালেন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। করোনা মোকাবিলায় একজোট হয়ে লড়াইয়ে দেশবাসীকে এগিয়ে এসে ‘কোভিড ওয়ারিয়ার’ হতে বলেন প্রধানমন্ত্রী।

রবিবার সকাল ১১ টায় ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠানে নরেন্দ্র মোদি বলেন, করোনার বিরুদ্ধে লড়াইয়ের জন্য খোলা হয়েছে covidwariors.gov.in নামে একটি পোর্টাল। এই পোর্টালে যোগ দিয়ে দেশবাসীকে ওয়ারিয়ার হতে আর্জি জানান প্রধানমন্ত্রী। পাশাপাশি তিনি বলেন, খুব কম সময়ের মধ্যেই দেড় কোটি লোক জুড়েছেন এই পোর্টালের মাধ্যমের নিজেদের সংযুক্ত করেছেন।

মোদি দেশবাসীর ভূয়ষী প্রশংসা করে বলেন, ‘পুরো দেশ এখন একজোট হয়ে সৈনিকের মতো লড়াই করছে। কেউ নিজের সামর্থ্য অনুযায়ী বাড়িভাড়ার টাকা মকুব করছেন, তো কেউ বাড়ির পরিচারিকা কাজে না এলেও তাঁকে মাইনে দিচ্ছেন। চিকিৎসা স্বাস্থ্যকর্মীদের অক্লান্ত পরিষেবা দেখে গোটা দেশ তাঁদের সম্মানে মোমবাতি জ্বালাচ্ছেন, ঘণ্টা বাজাচ্ছেন। সাফাইকর্মীদের উপর পুষ্পবৃষ্টি করা হচ্ছে।

প্রধানমন্ত্রী আরও বলেন, করোনা যেমন আমাদের আতঙ্কিত করেছে তেমনি এর ফলে অনেক ভালো পরিবর্তনও আমরা দেখতে পাচ্ছি। প্রত্যেকেই সামর্থ্য অনুযায়ী একে অন্যের পাশে দাঁড়িয়েছেন। কেউ মাস্ক তৈরি করে অন্যদের মধ্যে বিলি করেছেন তো অনেকেই ক্ষুধার্ত মানুষের মুখে খাবার তুলে দিয়েছেন।

সরকারের তরফেও দুঃস্থ মহিলাদের বিনামূল্যে তিনমাস রান্নার গ্যাস, কৃষক ও জনধন যোজনার অ্যাকাউন্ট থাকা মহিলাদের টাকা দিয়েছে। গরিব কল্যাণের টাকা সোজাসুজি অ্যাকাউন্টে পৌঁছচ্ছে।

দেশবাসীর পাশে দাঁড়ানোর পাশাপাশি ভারত বিশ্বের অন্যদেশগুলিকে ওষুধ ও অন্য সামগ্রী দিয়ে সাহায্য করেছে। এর ফলে বিভিন্ন দেশের মানুষ আজ সোশ্যাল মিডিয়ার মাধ্যমে ভারতকে ধন্যবাদ জানাচ্ছে, ভারতবাসীর প্রশংসা করছে। আসলে করোনা সামাজিক দৃষ্টিভঙ্গিটাই পুরো বদলে দিয়েছে। আর বিশ্বে মানবতার নজির রেখেছে ভারত।’

অক্ষয় তৃতীয়ার পূণ্যলগ্নে এই পবিত্র তিথির তাৎপর্য উল্লেখ করে নরেন্দ্র মোদি
দেশ ও পুরো পৃথিবীকে অক্ষয় রাখার আহ্বান জানান। আয়ুর্বেদ ও প্রাণায়ামের মতো প্রাচীন শিক্ষার জন্য আমাদের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা এই যুদ্ধে আমাদের জয়ী করবে বলেও উল্লেখ করেন।

এছাড়াও মোদি দেশবাসীকে ধন্যবাদ  জানিয়ে বলেন,  লকডাউনের মধ্যে বাড়ি থেকেই মানুষ যেভাবে উৎসব পালন করেছেন তাতে তার জন্য বিশেষভাবে ধন্যবাদ।

পাশাপাশি মোদি দেশবাসীকে ফের একবার সতর্ক করে দিয়ে বলেন, কোনও ভাবেই কেউ যেন ভেবে না নেয় যে তাঁদের এলাকায় এই ভাইরাস এখনও যায়নি বলে আর যাবে না। সব সময় সচেতন থাকতে হবে। মোদি বলেন,  তাই কেউ যেন কোনও ভাবে লকডাউনের নিয়ম না ভাঙে।তিনি বলেন, ‘দো গজ দোরি, বহত হ্যায় জরুরি’।

পাশাপাশি প্রধানমন্ত্রী বলেছেন, যখন পরের বার ‘মন কি বাত’ অনুষ্ঠান হবে, তখন তিনি আশা রাখেন এই ভাইরাসের প্রকোপ অনেকটা কমবে।

Related Articles

Back to top button
Close