fbpx
কলকাতাহেডলাইন

মাইক্রোবায়োলজি ল্যাবেই ৬ জন চিকিৎসকের সংক্রমণ, করোনা পরীক্ষা বন্ধের নির্দেশ কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: খাস কলকাতার মধ্যে করোনা চিকিৎসায় সাধারণ মানুষের একমাত্র ভরসা কলকাতা মেডিক্যাল কলেজ। কিন্তু এই হাসপাতালের যে ল্যাবে করোনা পরীক্ষা হয়, সেই মাইক্রোবায়োলজি ল্যাবেই ৬ জন চিকিৎসক করোনা আক্রান্ত হওয়ায় সাময়িক ভাবে করোনা পরীক্ষা বন্ধ রাখা হল কলকাতা মেডিক্যাল কলেজে।
 হাসপাতাল সূত্রের খবর, যে রাসায়নিক ব্যবহার করে আরটি-পিসিআর পরীক্ষা করা হয়, সেটিই কোনও ভাবে জীবাণু সংক্রমণের কবলে। ফলে আপাতত কোভিড টেস্ট বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। তবে এ দিন থেকে সব রকম রোগী ভর্তির প্রক্রিয়া জোরকদমে শুরু হয়েছে। হাসপাতাল সূত্রে খবর, মেডিক্যালের অ্যানেক্স হিসেবে পরিচিত মেয়ো হাসপাতালকে ৩০০ শয্যার সেফ হোম হিসেবে গড়ে তোলা যায় কি না, তা নিয়েও চিন্তাভাবনা করছেন স্বাস্থ্যকর্তারা।
 অন্যদিকে, মেডিক্যাল কলেজ হাসপাতালের মেডিক্যালের অধ্যক্ষ মঞ্জুশ্রী রায়ের গাড়ির চালক করোনা পজিটিভ হয়ে পড়ায় আরও উদ্বেগ বেড়েছে। অধ্যক্ষ নিজের লালারসের নমুনা ট্রপিক্যালের ল্যাবে পাঠানোর পাশাপাশি কোয়ারান্টাইনের নিয়মকানুন মেনে চলতে শুরু করেছেন। মেডিক্যালের রোগীকল্যাণ সমিতির চেয়ারম্যান নির্মল মাজি অবশ্য বলেন, ‘আগুন নিয়ে কাজ করতে গেলে একটু-আধটু ফোস্কা পড়তেই পারে। এতে ঘাবড়ে গেলে চলবে না। আমরা মাস্ক পরে তো থাকিই, নিজেদের মধ্যে কথা বলার সময়েও যথাযথ দূরত্ব বজায় রেখে চলি। তাই আমাদের কাউকে কোয়ারান্টাইনে যাওয়ার দরকার নেই।’ সাম্প্রতিক বিভিন্ন সমস্যা ও দুর্নাম সত্ত্বেও করোনা চিকিৎসায় মেডিক্যাল কলেজ ভালো কাজ করছে বলেও দাবি করেন তিনি।

Related Articles

Back to top button
Close