fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বিধিনিষেধ মেনে, জৌলুসহীন বারাসতের কালীপুজো

রুদ্র নারায়ণ রায়, বারাসত: করোনার আতঙ্কে কাঁপছে গোটা উত্তর ২৪ পরগণা জেলা। সংক্রমণ ও মৃত্যুতে কলকাতাকে টেক্কা দিচ্ছে এই জেলা। বারাসতের বড় পুজো কমিটিগুলির মধ্যে অন্যতম শতদল সঙ্ঘ, নবপল্লী আমরা সবাই, সন্ধানী, বিদ্রোহী ক্লাব বা পাইওনিয়ার ক্লাব। প্রত্যেক ক্লাবই এবার বাজেটে বড়সড় কাটছাঁট করেছে। ঝাঁ-চকচকে মণ্ডপ এবং রাস্তায় বিস্তীর্ণ আলোকসজ্জার খরচ বাঁচিয়ে অনেকেই এবার দুঃস্থ মানুষের সেবায় নিয়োজিত হতে চাইছেন। একমাত্র মণ্ডপ ছাড়া আর কোথাও থাকবে না আলোকসজ্জা। পুজো হবে সেটাও শুধুমাত্র নিয়ম পালনের জন্য। ফলে এবার থাকছে না পুজো কমিটিগুলির লড়াই। তার বদলে লড়াই হবে সামাজিক দায়বদ্ধতার। প্রতিবছর যেভাবে এই কালীপুজোকে ঘিরে বারাসত শহর সেজে ওঠে, এবছর সেভাবে সেজে উঠবে না। তা উদ্যোক্তাদের কথায় স্পষ্ট। উচ্চ আদালত বা রাজ্য সরকার কোনও নির্দেশিকা দিক বা না দিক, এবারে কালীপুজোয় যে বেশিরভাগ মণ্ডপেই সাধারণ দর্শনার্থীদের প্রবেশাধিকার থাকছে না।

আরও পড়ুন:কান্না থামাতে সন্তানকে শ্বাসরোধ করে খুন, গ্রেফতার বাবা

বারাসত পুরসভার মুখ্য প্রশাসক সুনীল মুখার্জি জানান, বারাসতের পুজো উদ্যোক্তারা নিজেদের মধ্যে বৈঠক করে ইতিমধ্যেই এই প্রস্তাব জমা দিয়েছেন। তবে প্রতি বছরের মতো এবছরও কালীপুজো ঘিরে সমস্ত রকম ব্যবস্থা নেবে পুরসভা। পাশাপাশি, উৎসবের এই সময় করোনা পরিস্থিতি মোকাবিলার জন্য একাধিক সাবধানতা অবলম্বন করতে চলেছে বারাসত পুরসভা বলেও জানান বারাসত পৌরসভার মুখ্য প্রশাসক সুনীল মুখার্জি।

Related Articles

Back to top button
Close