fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

একদিনে দেশে ২৩ হাজার আক্রান্ত ,স্বস্তি দিয়ে বাড়ছে সুস্থতার হারও

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: আনলক শুরু হওয়ার পর থেকে প্রায় প্রতিদিনই রেকর্ড হারে বাড়ছে দেশের করোনা আক্রান্তের সংখ্যা। দেশে গত কয়েক দিন ধরে প্রতিদিনই আক্রান্তের সংখ্যা ২০ হাজারের বেশি বাড়ছে। গতকাল একদিনে প্রায় ২২ হাজার আক্রান্তের খোঁজ পাওয়া গিয়েছিল। সেই সংখ্যাটা এদিন আরও খানিকটা বেড়েছে। গত ২৪ ঘণ্টায় আরও প্রায় ২৩ হাজার মানুষ নতুন করে নভেল করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন। ফলে দেশে মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে সাত লাখের কাছে পোঁছেছে। তবে সেই সঙ্গে সুস্থতার হারও বাড়ছে। একদিনে প্রায় ১৭ হাজার মানুষ সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরেছেন। দেশে মোট সুস্থও হয়ে উঠেছেন সাড়ে চার লাখের বেশি আক্রান্ত।

কেন্দ্রীয় স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় নতুন করে ২২,৭৫২ জন আক্রান্ত হয়েছেন। এর ফলে ৮ জুলাই, বুধবার, সকাল ৮টা পর্যন্ত ভারতে মোট আক্রান্তের সংখ্যা ৭,৪২,৪১৭। গত ২৪ ঘণ্টায় ভারতে করোনা আক্রান্ত হয়ে ৪৮২ জনের মৃত্যু হয়েছে। অর্থাত্‍ এখনও পর্যন্ত দেশে করোনায় মৃতের সংখ্যা ২০,৬৪২। ভারতে করোনায় মৃত্যুহার ২.৭৮ শতাংশ। দেশে মৃত্যুহার ফের প্রতিদিন কমছে। যত বেশি নমুনা পরীক্ষা করা হবে, তত মৃত্যুহার কমবে বলেই জানাচ্ছেন বিশেষজ্ঞরা। স্বাস্থ্যমন্ত্রকের বুলেটিন জানিয়েছে, আক্রান্তের সংখ্যা বৃদ্ধির সঙ্গে সঙ্গে ভারতে করোনা থেকে সুস্থ হয়ে ওঠা মানুষের সংখ্যাও বাড়ছে।

বুলেটিন জানিয়েছে, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছে উঠেছেন ১৬,৮৮৩ জন। ভারতে মোট সুস্থ হয়ে ওঠা ব্যক্তির সংখ্যা ৪,৫৬,৮৩১ জন। এই মুহূর্তে দেশে সুস্থতার হার ৬১.৫৩ শতাংশ। এই সুস্থতার হার ক্রমাগত বেড়েই চলেছে। এখনও চিকিৎসাধীন ২ লক্ষ ৬৪ হাজার ৯৪৪ জন । অর্থাৎ, সক্রিয় রোগীর থেকে এখন করোনাজয়ীর সংখ্যা প্রায় দু’লক্ষ বেশি। সংক্রমণের নিরিখে ইতিমধ্যেই রাশিয়াকে টপকে তৃতীয় স্থানে উঠে এসেছে ভারত। শুধুমাত্র আমেরিকা এবং ব্রাজিল রয়েছে উপরে। এর মধ্যে ব্রাজিলের তুলনায় ভারতের সংক্রমণের হার কিছুটা হলেও বেশি।

আরও পড়ুন: বিভ্রান্তিতে পড়ুয়ার, ‘বাধ্যতামূলক’ কলেজ-বিশ্ববিদ্যালয়ের পরীক্ষা, ইউজিসি এর পর নয়া নির্দেশিকা মানব সম্পদ উন্নয়ন মন্ত্রকের

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা সবথেকে বেশি মহারাষ্ট্রে। এই মুহূর্তে মারাঠা প্রদেশে মোট আক্রান্ত ২,১৭,১২১। অর্থাত্‍ দেশের মোট আক্রান্তের ২৯.২৫ শতাংশ এই রাজ্যেই রয়েছে। মহারাষ্ট্রে কোভিডে মারা গিয়েছেন ৯২৫০ জন। আক্রান্তের সংখ্যায় মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে তামিলনাড়ু। দক্ষিণের এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ১,১৮,৫৯৪। মৃত্যু হয়েছে ১৬৩৬ জনের। খুব বেশি পিছিয়ে নেই দিল্লিও। ভারতের তৃতীয় রাজ্য হিসেবে রাজধানীতে আক্রান্তের সংখ্যা ১ লাখ ছাড়িয়ে গিয়েছে। দিল্লিতে এই মুহূর্তে আক্রান্ত হয়েছেন ১,০২,৮৩১ জন। মৃত্যু হয়েছে ৩১৬৫ জনের। গুজরাতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩৭,৫৫০ জন। মারা গিয়েছেন ১৯৭৭ জন। দেশে পঞ্চম স্থানে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ২৯,৯৬৮। মৃত্যু হয়েছে ৮২৭ জনের। মহারাষ্ট্র, তামিলনাড়ু, দিল্লি, গুজরাত ও উত্তরপ্রদেশ, এই পাঁচ রাজ্যেই মোট আক্রান্তের সংখ্যা পাঁচ লাখ ছাড়িয়ে গিয়েছে। এই পাঁচ রাজ্য মিলিয়ে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৫,০৬,০৬৪ জন। এই সংখ্যা দেশের মোট আক্রান্তের ৬৮.১৬ শতাংশ।

Related Articles

Back to top button
Close