fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বাজারে ভিড় কমানোর লক্ষ্যে বাঁশ দিয়ে রাস্তা আটকে দিলেন ব‍্যবসায়ীরাই

নিজস্ব প্রতিনিধি, দিনহাটা: দিনহাটা মহকুমায় করোনা পজেটিভের সংখ্যা যখন বেড়ে চলছে তখন মাছ ও মাংসের বাজারে অস্বাভাবিক ভাবে ভিড় বাড়ছে প্রতিদিন। এই রোগ প্রতিরোধে বাজারে ভিড় কমানোর লক্ষ্যে মাছ ও মাংসের বাজারের ব্যবসায়ীরা নিজেরাই বিশেষ উদ্যোগী হয়ে যাতায়াতের দুইটি রাস্তা রেখে বাকি সব রাস্তা বাঁশ দিয়ে আটকে দিল। শুধু তাই নয় যে দুটি রাস্তা খোলা রাখা হয়েছে সেখানে ব্যবসায়ী সমিতির পক্ষ থেকেও চার ঘন্টার জন্য বাজার যেখানে খোলা থাকে সেখানে তারা গেটে পায়ে দাঁড়িয়ে থেকে গ্রাহকদের নিয়ন্ত্রণ করবে।

করোনাভাইরাস মোকাবেলায় সামাজিক দূরত্ব বজায় রাখতে যখন প্রশাসন , পুর কর্তৃপক্ষ এবং বিভিন্ন সংগঠনের পক্ষ থেকে বারে বারে মানুষের কাছে আবেদন জানানো হচ্ছে মাস্ক ব্যবহার বিশেষ প্রয়োজন তখন দিনহাটা হাটবাজারে মাছ-মাংসের দোকানগুলোতে নানাভাবে ভিড় উপচে পড়ছে। অথচ দিনহাটার চওড়াহাটে মাছ ও মাংসের দোকান গুলিতে প্রতিদিন ভিড় চলায় সামাজিক দূরত্ব বিঘ্নিত হয়ে পড়ছে। এর ফলে এই রোগ প্রতিরোধ তো দূরের কথা উল্টো যেকোনো সময় এই রোগ ছড়িয়ে পড়ার আশঙ্কা করছেন অনেকেই। তাই চওড়াহাট বাজারের মাছ ও মাংসের বাজারের ব্যবসায়ীরা নিজেরাই উদ্যোগী হয়ে দুই দিকে যাতায়াতের রাস্তা বাঁশ দিয়ে বাকি দিক আটকে দিচ্ছে।

মাছ ও মাংসের বাজারের ব্যবসায়ীরা মারণ এই রোগ প্রতিরোধে নিজেরাই উদ্যোগী হয়ে বাঁশের বেরিগেট দেওয়ায় তাদের এই উদ্যোগকে সাধুবাদ জানান গ্রাহকদের অনেকেই।
দিনহাটা মহকুমা ব্যবসায়ী সমিতির সম্পাদক রানা গোস্বামী বলেন ইতিপূর্বে মাছ ও মাংসের দোকান গুলিকে শোনীদেবী স্কুলের মাঠে নিয়ে যাওয়া হয়েছিল। তারপর একদিকে ঝড়-বৃষ্টি অপরদিকে জামাইষষ্ঠীর আগে ব্যবসায়ীরা আবার তাদের পুরনো জায়গায় ফিরে আসে। সেক্ষেত্রে সবজির বাজারে গ্রাহকদের ভিড় অনেকটাই কমলেও চওড়াহাটে মাছ-মাংসের দোকানগুলিতে প্রতিদিনের বেড়ে চলছিল। বাজারে ভিড় কমাতে এবং সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে যাতে গ্রাহকরা মাছ মাংস কিনতে পারে সেদিকে লক্ষ্য রেখে ব্যবসায়ীরা নিজেরাই উদ্যোগ নেওয়ায় এটা ভালো দিক বলে উল্লেখ করেন তিনি।

ব্যবসায়ী কল্যাণ সমিতির সম্পাদক উৎপলেন্দু রায় বলেন মাছ-মাংসের ব্যবসায়ীরা বাজারে ঢোকার ক্ষেত্রে সবকটি গেট বাঁশ দিয়ে আটকে দেওয়ায় এবং গ্রাহকদের যাতায়াতের জন্য দুটি গেট খোলা রাখলেও সেখানে ব্যবসায়ীরাও পর্যায়ক্রমে নিজেরাই দাঁড়িয়ে থেকে ভিড় রোধে বিশেষ উদ্যোগ হয়েছেন। এতে মাছ ও মাংসের বাজারে ভিড় অনেকটাই কমবে বলেও তিনি উল্লেখ করেন।

দিনহাটা চওড়াহাট মৎস্য ব্যবসায়ী সমিতির সভাপতি মঙ্গল বিশ্বাস, সম্পাদক ফুলাল বিশ্বাস, দীপঙ্কর দাস প্রমুখ বলেন এই রোগের হাত থেকে মানুষকে রক্ষা করতে এবং বাজারে ভিড় কমানোর জন্য সবকটি গেট কে বাঁশ দিয়ে আটকে দেওয়া হয়। যাতে দোকানে অতিরিক্ত সংখ্যক গ্রাহক কোনোভাবেই ভিড় করতে না পারে। যে দুইটি গেট খোলা থাকছে সেখানে ব্যবসায়ীরা নিজেরা দাঁড়িয়ে থেকে গ্রাহকদের নিয়ন্ত্রণ করবেন।কোনভাবেই যাতে বেশি সংখ্যক গ্রাহক একসাথে ভিতরে ঢুকতে না পারে তার জন্য তাঁরা সচেষ্ট থাকবেন বলেও জানান।

Related Articles

Back to top button
Close