fbpx
কলকাতাহেডলাইন

শিক্ষাক্ষেত্রে, সমাজতন্ত্র প্রহসন, দাবি জয়দীপ মুখোপাধ্যায়ের

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা: শিক্ষাক্ষেত্রে সমাজতান্ত্রিক ব্যবস্থা প্রহসনের সমান। দাবি করলেন অল ইন্ডিয়া লিগাল এড ফোরামের সাধারণ সম্পাদক তথা বিশিষ্ট আইনজীবী জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। বৃহস্পতিবার এক বিবৃতিতে তিনি কোভিড পরিস্থিতিতে সমাজের পিছিয়ে পড়া বর্গের ছেলেমেয়েদের শিক্ষার কথা তুলে ধরে একথা বলেন। প্রশ্ন তুলে লিগাল এড ফোরামের সাধারণ সম্পাদক জয়দীপ বলেন, ‘যে গরীব ছাত্র – ছাত্রীদের অভিভাবকদের অ্যানড্রোয়েড মােবাইল ফোন কিনে দেওয়ার ক্ষমতা নেই তাদের ছেলে – মেয়েদের কি শিক্ষার অধিকার নেই? এ কি রকম সমাজতান্ত্রিকতার নিদর্শন?’
আসলে স্কুল শিক্ষা দপ্তর এর পক্ষ থেকে সম্প্রতি কোভিদ পরিস্থিতি সামাল দিয়ে শিক্ষাব্যবস্থা চালু রাখতে অ্যান্ড্রয়েড ফোনের মাধ্যমে শিক্ষাদান পর্ব চালু করা হয়। কিন্তু গ্রামবাংলার বেশিরভাগ খেটেখাওয়া কৃষক-মজুর মানুষের পক্ষে তার ছেলেমেয়েদের জন্য সেই ফোন কিনে দেওয়া সম্ভব নয়। সে ক্ষেত্রে বেশিরভাগ ছেলেমেয়েদের ভবিষ্যৎ অন্ধকার হয়ে যাচ্ছে। সেজন্যই এ দিন সমাজতান্ত্রিক ব্যবস্থা ওপর ক্ষোভ প্রকাশ করেন জয়দীপ মুখোপাধ্যায়। এদিন এ প্রসঙ্গে তিনি আরো বলেন, ‘১৯৭২ সালে সােভিয়েত ইউনিয়নকে নকল করে তৎকালীন প্রধানমন্ত্রী ইন্দিরা গান্ধী সংবিধান সংশােধন করে , সােশালিস্ট অর্থাৎ সমাজতান্ত্রিক কথাটি যুক্ত করলেন বর্তমান পরিস্থিতিতে সমাজতান্ত্রিকতার নামমাত্র কোথাও চোখে পড়ে না । আমার একটা প্রশ্ন – বর্তমান করােনা পরিস্থিতিতে স্কুল , কলেজসহ সকল শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানে “অনলাইন ” ক্লাস হচ্ছে।  অ্যানড্রোয়েড মােবাইল ফোনের মাধ্যমে। কিন্তু যাদের সেই ক্ষমতা নেই তারা কিভাবে শিক্ষা গ্রহণ করবেন।’

Related Articles

Back to top button
Close