fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

নাগরিক স্বার্থে কেন্দ্র-রাজ্যে এক রাজনৈতিক দলের সরকার আবশ্যিক: সাংসদ জগন্নাথ সরকার

শ্যামল কান্তি বিশ্বাস, রানাঘাট : রাষ্ট্রের অধিকার উপভোগ কল্পে, কেন্দ্র-রাজ্য সহাবস্থান সহ একদলীয় শাসন অত্যন্ত জরুরি। অন্যথায় নাগরিকদের বঞ্চনার শিকারের সম্ভাবনা থাকে প্রবল। যার যথার্থ উদাহরণ এই মুহূর্তে আমাদের রাজ্য পশ্চিমবঙ্গ, এই অভিযোগ বিজেপি সাংসদ জগন্নাথ সরকারের। জগন্নাথবাবু অত্যন্ত দৃঢ়তার সঙ্গে জানালেন, আন্তর্জাতিক করোনা পরিস্থিতি মোকাবেলা সহ যে কোনও কেন্দ্রীয় প্রকল্প রূপায়নের ক্ষেত্রে আমাদের রাজ্য সরকারের ভূমিকা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যজনক। সব সময় বিপরীত মেরুতে অবস্থান সহ কেন্দ্রের যে কোনো প্রকল্পই বাস্তবায়নের ক্ষেত্রে জল ঘোলা না করে অন্তত প্রথম পদক্ষেপে মেনে নিতে অপারগ,এ রাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী।এটা তার রাজনৈতিক রণকৌশল না কি ম্যানিয়া! এ উত্তর তিনিই দিতে পারবেন। আর এর ফল স্বরূপ, সার্বিক ভাবে ক্ষতিগ্রস্থ হচ্ছেন রাজ্যের সর্বস্তরের জনগন।

 

আয়ুষ্মান ভারত প্রকল্প থেকে পাঁচ লক্ষ টাকার আর্থিক সুবিধা উপভোগের সুযোগ থেকে বঞ্চিত এ রাজ্যের জনগন। কৃষক কল্যাণ যোজনা প্রকল্পের ছয় হাজার টাকার আর্থিক সুবিধা উপভোগের সুযোগ থেকে বঞ্চিত এরাজ্যের কৃষকেরা। এক দেশ এক রেশন কার্ড, দেশের অধিকাংশ রাজ্য মেনে নিলেও এরাজ্যের মুখ্যমন্ত্রী সন্মতিতে নিমরাজি, কিন্তু কেন? যে রাজ্যে কর্মসংস্থান নেই। পঞ্চাশ লক্ষের ও বেশি শ্রমজীবী মানুষ কাজ না পেয়ে ভিন রাজ্যে পরিযায়ী শ্রমিক হিসাবে কর্মরত,তাদের কথা একবার ও ভাবলেন না? এক দেশ এক রেশন কার্ড এই ব্যাবস্থা চালু হলে অন্তত এই ধরনের ভিনরাজ্যে কর্মরত শ্রমিকদের কোনোদিন অর্থ সহ অন্ন সংস্থানের অসুবিধা হবে না। কাজ দেওয়ার ক্ষমতা নেই কিন্তু অন্ন কেড়ে নেওয়ার জঘন্ন ষড়যন্ত্রে তৎপর! সৌজন্যবোধ, সৃষ্টাচার, বিরোধী রাজনৈতিক ব্যক্তিত্বদের প্রতি সন্মান প্রদর্শন,এ সব ই জলাঞ্জলী দিয়ে নতুন প্রজন্ম কে কুশিক্ষার পাঠ দিতে সদাব্যাস্ত আজ তৃণমূল নেতা- মন্ত্রীরা।ফলে রাজ্যবাসী কে ন্যায্য প্রতিষ্ঠা সহ তার অধিকারকে ছিনিয়ে নিতে হলে রাষ্ট্রের সর্বোত সুযোগ সুবিধা রাজ্যকে অর্জন করাতে চাইলে, নিশ্চিত ভাবে রাজ্যের নাগরিকদের মানসিকতা পরিবর্তন জরুরি।

 

 

কেন্দ্র-রাজ্য সহাবস্থান কল্পে এক দেশ,এক রাজনৈতিক দলের প্রতিষ্ঠা বর্তমান সময়ে অত্যন্ত আবশ্যক। কেন্দ্রে যে রাজনৈতিক দল ক্ষমতায় থাকবে, রাজ্যে ও সেই রাজনৈতিক দলকে ই ক্ষমতায় বহাল রাখতে হবে,তবেই নিশ্চিত্ ভাবে সার্বিক উন্নয়ন ঘটবে রাজ্যের। এবং রাজ্যে যদি উন্নয়নের জোয়ার ব ই য়ে দিতে হয়, তাহলে রাজ্যের নাগরিক দের উদ্দেশ্যে সাংসদ জগন্নাথ সরকারের বার্তা, আগামীতে আর ভূল নয়! সিদ্ধান্ত নিতে হবে ভেবে চিন্তে,নিজের সহ ভবিষ্যৎ প্রজন্মের কথা মাথায় রেখে।এক দেশ ,এক রাজনৈতিক দল।কেন্দ্র- রাজ্য এক রাজনৈতিক দল কর্তৃক শাসন কার্য বহাল রাখতে পারলে, তবেই দেশ এগিয়ে যাবে এবং জনগনের সার্বিক উন্নয়ন ঘটবে। উদার এই ভাবনা সহ চির শাশ্বত এই মতবাদকেই প্রতিষ্ঠা করতে হবে বলে অভিমত, সাংসদ জগন্নাথ সরকারের।

Related Articles

Back to top button
Close