fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

খোলা বাজারে আলুর দাম আকাশছোঁয়া,  বিপাকে সাধারন মানুষ

শান্তনু চট্টোপাধ্যায়, রায়গঞ্জ: আলুর দাম অস্বাভিক হারে বেড়ে যাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন সাধারন মানুষ। আলুর মতো প্রয়োজনীয় জিনিসের দাম বেড়ে যাওয়ায় চাহিদার তুলনায় অনেক কম আলু কিনতে বাধ্য হচ্ছেন ক্রেতারা। অন্যদিকে দাম বাড়লেও লাভ বাড়েনি বিক্রেতাদের। বিক্রি কমে যাওয়ায় আর্থিক ক্ষতির মুখে পড়তে হচ্ছে তাদেরও।

করোনা প্রতিরোধে ২৩ মার্চ থেকে সারা দেশে লকডাউন শুরু হয়েছে। লকডাউন পিরিয়ডে নিত্যপ্রয়োজনীয় জিনিসের দাম যাতে বাড়ে সরকারি স্তরে নজরদারি রাখা হয়েছে। আনলক ওয়ান থেকেই রায়গঞ্জের জনজীবন স্বাভাবিক হয়ে আসছে। দোকানপাট, হাটবাজার যথারীতি খুলছে। দোকানে দোকানে ক্রেতাদের ভিড়ও স্বাভাবিক।

লকডাউন চলাকালীন মানুষের কাজ কর্ম সব কিছুই বন্ধ ছিল। চরম আর্থিক সংকটের মধ্যে মানুষ দিন গুজরান করছে। লকডাউন পিরিয়ডে সরকারি নজরদারির কারনে বাজারে আলুর দাম ছিল প্রতি কেজি ১৩ টাকা। জনজীবন স্বাভাবিক হতেই আলুর দাম উর্দ্ধমুখী। বর্তমানে খোলা বাজারে আলু বিক্রি হচ্ছে প্রতি কেজি ২৫ টাকা। আচমকা আলুর দাম দ্বিগুন হয়ে যাওয়ায় চরম বিপাকে পড়েছেন আমজনতা। দাম বাড়ার কারনে চাহিদার তুলনায় অর্ধেক কিনতে হচ্ছে।

ক্রেতাদের দাবি, চরম আর্থিক সংকটের মধ্যে আলুর মত জিনিসের দাম দ্বিগুন হওয়ায় তারা বিপাকে পড়েছেন। একই দাবি করেছেন করেছেন বিক্রেতারাও। আলুর দাম বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ক্রেতারা চাহিদার তুলনায় অর্ধেক আলু কিনছেন। আলুর বিক্রি কমে যাবার কারনে তাদের মুনাফা কম হচ্ছে। ফলে তাদের সংসার চালাতেও সমস্যার মধ্যে পড়তে হচ্ছে।

Related Articles

Back to top button
Close