fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

বসিরহাট জেলা পুলিশের ডিস্ট্রিক্ট ওয়েলফেয়ার কমিটির উদ্যোগে একটি নতুন ভবন উদ্বোধন

শ্যাম বিশ্বাস, উত্তর ২৪ পরগনা: ধর্মীয় উস্কানিতে যাব না, মানুষকে সেবা করে যাব এই অঙ্গীকার বসিরহাট পুলিশের। মুখ্যমন্ত্রীর অনুপ্রেরণায় বেঙ্গল পুলিশের হেডকোয়ার্টার হতে চলেছে। করোনা হোক বা যেকোনো সামাজিক উৎসব, সব ক্ষেত্রেই পুলিশকর্মীদের অগ্রণী ভূমিকা থাকে। বসিরহাট সাইবার ক্রাইম থানার পাশে বসিরহাট পুলিশ জেলার ডিস্ট্রিক্ট ওয়েলফেয়ার কমিটির উদ্যোগে একটি নতুন ভবন উদ্বোধনের মাধ্যমে পুলিশের এই সমস্যা সমাধানের উদ্যোগ নেওয়া হলো। এখানে এসে পুলিশকর্মীরা তাদের সমস্যা এবং চাকরিতে কোন অসুবিধা হচ্ছে কিনা সেই সমস্ত অভিযোগ করতে পারবেন। এই ধরনের এক নতুন উদ্যোগকে স্বাগত জানাতে পুলিশ কর্মীদের পাশে দাঁড়াতে এই নতুন ভবনের উদ্বোধন করেন বসিরহাট পুলিশ জেলার পুলিশ সুপার তথা এই কমিটির চেয়ারম্যান কঙ্কর প্রসাদ বারুই ও বসিরহাট ট্রাফিক গার্ডের ডিএসপি আনন্দজিৎ হোঁড় সহ একাধিক পুলিশ জেলার উচ্চ পদস্থ আধিকারিকরা।

আরও পড়ুন- বসিরহাটে ২০২১ ভোটের দামামা বাজালো তৃণমূল কংগ্রেস

পাশাপাশি রাজ্যে যে ৭১টি কমিটি আছে শনিবার স্টেট কমিটির সঙ্গে গুরুত্বপূর্ণ বৈঠক ডেকেছে পুলিশ আধিকারিকরা। সেখানে এই বিষয়ে এবং বিভিন্ন বিষয়ে আলোচনা হবে। এই কমিটির কো-অর্ডিনেটর বিজিত রাও বলেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের নির্দেশে নতুনভাবে কমিটি সক্রিয়তার সঙ্গে কাজ করবে, কারণ পুলিশ কর্মীদের মধ্যে হতাশা অসন্তোষ বিক্ষোভ বাড়ছে।

তার পাশাপাশি রাজ্যে পুলিশ আধিকারিক, কন্সটেবল, হোম গার্ড, ভিলেজ পুলিশ ও  সিভিক সহ মোট ৫ লক্ষ পুলিশ কর্মীদের সমস্যা দূরীকরণে এই কমিটি কাজ করে যাবে। করোনায় মৃত্যু ও পাশাপাশি ট্রাফিকের কাজ করা কালীন যে পুলিশদের দুর্ঘটনায় মৃত্যু হয় সেই সমস্ত মৃত পুলিশকর্মী পরিবারের পাশে গিয়ে দাঁড়ানোরই এই সংগঠনের মূল উদ্দেশ্য।

তিনি আরও জানান এর আগে কোনদিন বেঙ্গল পুলিশের হেডকোয়ার্টার হয়নি। এই মুখ্যমন্ত্রী আসার পরে সেটা হতে চলেছে, তিনি যেভাবে পুলিশকর্মীদের মর্যাদা সম্মান দিচ্ছেন তা আগে পাওয়া যায়নি এই মুখ্যমন্ত্রীর আদর্শ সারা ভারত বর্ষ অনুসরণ করবে।

 

Related Articles

Back to top button
Close