fbpx
কলকাতাশিক্ষা-কর্মজীবনহেডলাইন

বাড়ল কলেজে ভর্তির সময়সীমা, এখনও ফাঁকা বহু আসন

নিজস্ব প্রতিনিধি, কলকাতা:  আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত স্নাতকে ভর্তির প্রক্রিয়ার সময় সীমা বাড়ানো হল। অর্থাৎ বাড়তি পাঁচ দিন আরও সময় দেওয়া হল ছাত্রছাত্রীদের। পুর্ব নির্ধারিত সূচি অনুযায়ী ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সূচি ছিল। স্নাতক স্তরে ভর্তির সময়সীমা আরও এক দফায় বৃদ্ধি করল রাজ্য সরকার৷ আগামী ৩০ সেপ্টেম্বর স্নাতকে ভর্তির প্রক্রিয়া চলবে বলে প্রতিটি কলেজ ও বিশ্ববিদ্যালয়কে নির্দেশ দিয়েছেন শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়৷ পড়ুয়ারা পছন্দের কলেজে ভর্তি হতে পারছেন না, সমস্যার কথা স্বীকার করে শিক্ষামন্ত্রী জানান, পড়ুয়াদের স্বার্থে সমস্ত কলেজে ভর্তির সময়সীমা বাড়ানো হচ্ছে৷
গত ১০ অগস্ট থেকে ২০২০-২০২১ শিক্ষাবর্ষের জন্য স্নাতকে অনলাইন ভর্তি প্রক্রিয়া শুরু হয়৷ ২৫ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত সেই ভর্তি প্রক্রিয়া চলার কথা ছিল৷ কিন্তু, এবছর করোনা আবহে ঢালাও নম্বরের সৌজন্যে পছন্দের কলেজে ভর্তির ক্ষেত্রে সমস্যায় পড়েছেন পড়ুয়াদের একাংশ৷ ৯০% নম্বর পেয়েও  কলেজের মেধাতালিকায় স্থান পাননি বহু পড়ুয়া৷ এবছর উচ্চ মাধ্যম পরীক্ষায় সর্বোচ্চ নম্বরের ভিত্তিতে পড়ুয়াদের বাতিল পরীক্ষার নম্বর দেওয়া হয়েছে৷ তাতেই নম্বর উঠেছে ঝুড়ি ঝুড়ি৷ আর তাতেই বিভিন্ন নামকরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে স্নাতকে ভর্তি হওয়ার জন্য মেধা তালিকায় স্থান পাওয়ার ক্ষেত্রে বেড়ে গিয়েছে প্রতিযোগিতা৷ ৯০ শতাংশ নম্বর পেয়ে বহু পড়ুয়ারা পছন্দের কলেজে ভর্তি হতে পারেননি৷
নম্বরের ছড়াছড়ির কারণে মেধা তালিকায় তীব্র প্রযোগিতার কারণে বহু কলেজে অর্ধেকের বেশি আসন এখনও খালি৷ তালিকায় প্রথমের দিকে স্থান না পাওয়ায় বহু পড়ুয়া অন্য কলেজে সুযোগ পেয়ে চলে গিয়েছেন৷ ফলে বহু আসন শূন্য৷ যদি, এই সমস্যা প্রতিবছর ধরা দিলেও এবার তা ব্যাপক আকার নিয়েছে বলে খবর৷ সূত্রের খবর, কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয়ের অন্তর্গত বহু কলেজে আসন খালি পড়ে রয়েছে৷ তালিকায় রয়েছে কলকাতার বেশ কয়েকটি নামি কলেজেও৷ বিষয়টি নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের তরফে আলোচনা হয়েছে বলে খবর৷ পরিস্থিতির গুরুত্ব বুঝে ছাত্র ভর্তির সময়সীমা আরও এক মাস বৃদ্ধির সিদ্ধান্ত ইতিমধ্যেই ঘোষণা করে দিয়েছে কলকাতা বিশ্ববিদ্যালয় কর্তৃপক্ষ৷ এবার বাকি বিশ্ববিদ্যালয়ের ঘোষণার অপেক্ষা৷

Related Articles

Back to top button
Close