fbpx
দেশহেডলাইন

মৃতের সংখ্যা সামান্য বাড়ল, কমল সুস্থতার হার, একদিনে আক্রান্ত ৫৪ হাজার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক:   দেশে দৈনিক সংক্রমিতের গ্রাফ স্থিতিশীল পর্যায়ে থাকছে না। গত সোমবার ৪৫ হাজারের ঘরে নেমে আসলেও গতকাল দৈনিক আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল। একই সঙ্গে মৃতের সংখ্যাটাও ৩ মাসের মধ্যে সবচেয়ে কমের দিকে ঘোরাফেরা করেছে গত দু’দিন। কিন্তু সেই অবস্থান ধরে রাখতে পারল না ভারত। মঙ্গলবার ফের আক্রান্তের সংখ্যা ৫০ হাজারের উপরের চলে গেল। মৃতের সংখ্যাটাও বাড়ল অনেকটাই। তবে, এই দুটি সংখ্যাই গত কয়েক সপ্তাহের তুলনায় অনেকটা কম।

বুধবার সকালে স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের  দেওয়া পরিসংখ্যান বলছে, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে ৫৪ হাজার ৪৪ জন করোনা  আক্রান্ত হয়েছেন। যা আগের দিনের থেকে প্রায় সাড়ে সাত হাজার বেশি। ফলে দেশে মোট করোনা আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়িয়েছে ৭৬ লক্ষ ৫১ হাজার ১০৮ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃতের সংখ্যাটা সামান্য বেড়েছে। স্বাস্থ্য ও পরিবারকল্যাণ মন্ত্রকের দেওয়া পরিসংখ্যান অনুযায়ী, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে মৃত্যু হয়েছে ৭১৭ জনের। ফলে দেশে মোট মৃতের সংখ্যা বেড়ে দাঁড়াল ১ লক্ষ ১৫ হাজার ৯১৪ জন।

তবে স্বস্তির খবর হল, দেশে গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন প্রায় ৬১ হাজার ৭৭৫ জন মানুষ। অর্থাৎ আক্রান্তের তুলনায় অনেকটা বেশি সুস্থ রোগীর সংখ্যা। এই মুহূর্তে দেশে মোট করোনাজয়ীর সংখ্যা ৬৭ লক্ষ ৯৫ হাজার ১০৩ জন। সক্রিয় রোগীর সংখ্যা ৭ লক্ষ ৪০ হাজার ৯০ জন। যা আগের দিনের তুলনায় অনেকটা কমেছে। দেশের সবচেয়ে বেশি প্রভাবিত ৫ রাজ্যেই করোনা আক্রান্তের গ্রাফ নিম্নমুখী। এদিকে গত ২৪ ঘণ্টায় প্রায় ১০ লক্ষ করোনা পরীক্ষা হয়েছে।

আরও পড়ুন: জৌলুসহীন আসানসোলের ঐতিহ্যের ৮টি দুর্গাপুজো… বন্ধ শোভাযাত্রা, বলি ও সিঁদুর খেলা

ভারতে আক্রান্তের সংখ্যা সবথেকে বেশি মহারাষ্ট্রে। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ১৬ লাখ ৯ হাজার ৫১৬ জন। মহারাষ্ট্রে কোভিডে মারা গিয়েছেন ৪২ হাজার ৪৫৩ জন। তবে এর মধ্যেই এই রাজ্যে সুস্থ হয়ে উঠেছেন ১৩ লাখ ৯২ হাজার ৩০৮ জন। অর্থাত্‍ এই মুহূর্তে মহারাষ্ট্রে অ্যাকটিভ রোগীর সংখ্যা ১ লাখ ৭৪ হাজার ৭৫৫ জন। আক্রান্তের সংখ্যায় মহারাষ্ট্রের পরেই রয়েছে অন্ধ্রপ্রদেশ। দক্ষিণের এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৮৯ হাজার ৫৫৩ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬৪৮১ জনের। আক্রান্তের সংখ্যায় তিন নম্বরে রয়েছে কর্নাটক। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৭ লাখ ৭৬ হাজার ৯০১ জন। মৃত্যু হয়েছে ১০ হাজার ৬০৮ জনের। চার নম্বরে রয়েছে তামিলনাড়ু। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৬ লাখ ৯৪ হাজার ৩০ জন। মৃত্যু হয়েছে ১০ হাজার ৭৪১ জনের। পাঁচ নম্বরে রয়েছে উত্তরপ্রদেশ। এই রাজ্যে আক্রান্তের সংখ্যা ৪ লাখ ৫৯ হাজার ১৫৪ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬৭১৪ জনের। ছ’নম্বরে রয়েছে দিল্লি। রাজধানীতে এই মুহূর্তে আক্রান্তের সংখ্যা ৩ লাখ ৩৬ হাজার ৭৫০ জন। মৃত্যু হয়েছে ৬০৮১ জনের। মহারাষ্ট্র, অন্ধ্রপ্রদেশ, কর্নাটক, তামিলনাড়ু, উত্তরপ্রদেশ ও দিল্লি, এই ছয় রাজ্যেই মোট আক্রান্তের সংখ্যা সাড়ে ৪৬ লাখের বেশি। এই রাজ্যগুলি মিলিয়ে মোট আক্রান্ত হয়েছেন ৪৬ লাখ ৬৫ হাজার ৯০৪ জন। এই সংখ্যা দেশের মোট আক্রান্তের ৬০.৯৮ শতাংশ। এই ছয় রাজ্য মিলিয়ে মোট ৮৩ হাজার ৭৮ জনের মৃত্যু হয়েছে, যা দেশের মোট মৃত্যুর ৭১.৬৭ শতাংশ।

Related Articles

Back to top button
Close