fbpx
আন্তর্জাতিকহেডলাইন

চিনকে শায়েস্তা করতে ইন্দোনেশিয়াকে অত্যাধুনিক ব্রাহ্মস ক্রুজ মিসাইল দেওয়ার ভাবনা ভারতের

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: দীর্ঘদিন দিন ধরেই চিনের সঙ্গে সীমান্ত নিয়ে ভারতের সংঘাত চলছে। কিন্তু করোনা আবহে সেই সংঘাত আরও বেড়েছে। তার মধ্যে লাদাখে ২০ জন ভারতীয় জওয়ানের শহিদ হওয়ার ঘটনা আগুনে আরও ঘি ঢেলেছে। তার পাল্টা জবাব হিসেবেও ভারত সরকার বিভিন্ন পদক্ষেপ গ্রহণ করেছে। ইতিমধ্যে চিনের বিভিন্ন অ্যাপ সহ একাধিক পণ্য বাতিল করা হয়েছে। এবার চিনকে শায়েস্তা করতে আরও একধাপ এগোল ভারত। বেজিংয়ের উদ্বেগ বাড়িয়ে ইন্দোনেশিয়াকে অত্যাধুনিক ব্রাহ্মস ক্রুজ মিসাইল জোগান দেওয়া নিয়ে চিন্তাভাবনা শুরু করেছে ভারত।

উল্লেখ্য, রাশিয়া ও ভারতের যৌথ উদ্যোগে তৈরি  ব্রাহ্মস মিসাইল। গত ডিসেম্বর মাসেই অত্যাধুনিক SU-30 MKI বা সুখোই যুদ্ধবিমান থেকে একটি ব্রাহ্মস মিসাইল ছোঁড়া হয়। নয়া নজির গড়ে বিশ্বে প্রথম যুদ্ধবিমান থেকে ‘ট্রাইসনিক ক্লাস’ মিসাইল ছুঁড়ে ভারতীয় বাযুসেনা। ২.৫ টন ওজনের এই মিসাইলটি ৩০০ কিলোমিটার পর্যন্ত আঘাত হানতে সক্ষম। প্রতি সেকেন্ডে এক কিলোমিটার পথ অতিক্রম করতে পারে ব্রাহ্মস। যে কোনও টার্গেটে ৯৯.৯৯ শতাংশ নিখুঁত হামলা চালাতে পারে।

সূত্রের খবর, গত রবিবার তিনদিনের সফরে ভারতে পা রাখেন ইন্দোনেশিয়ার প্রতিরক্ষামন্ত্রী জেনারেল পারবোও সুবিআন্ত। দু’দেশের মধ্যে সামরিক ও বাণিজ্যিক সম্পর্ক মজবুত করতে এই সফর বলে খবর। বিশেষ করে কাশ্মীর ইস্যুতে মালয়েশিয়ার সঙ্গে সংঘাতের পর থেকেই ইন্দোনেশিয়ার সঙ্গে সম্পর্ক আরও মজবুত করার চেষ্টা করছে ভারত। সোমবার নয়াদিল্লিতে দুই দেশের প্রতিরক্ষামন্ত্রীদের বৈঠকে উঠে আসে প্রতিরক্ষা সংক্রান্ত একাধিক ইস্যু। সেই বৈঠকে ব্রাহ্মস মিসাইল সরবরাহ নিয়েও আলোচনা হয়। অত্যাধুনিক এই ক্রুজ মিসাইলটি কিনতে আগ্রহী ইন্দোনেশিয়া।

Related Articles

Back to top button
Close