fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

করোনা রুখতে আয়ুর্বেদিক দাওয়াইয়ের ট্রায়াল শুরু করতে চলেছে ভারত

নিজস্ব প্রতিনিধি, লখনউ: করোনা রুখতে আয়ুর্বেদিক দাওয়াইয়ের ট্রায়াল শুরু করতে চলেছে ভারত। করোনা আতঙ্কে কাঁপছে গোটা বিশ্ব। প্রতিদিন লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে আক্রান্তের সংখ্যা, বাড়ছে মৃত্যুও। এই পরিস্থিতিতে থেকে মুক্তি পাওয়ার জন্য করোনা ভ্যাকসিনের সন্ধান চলছে বিশ্বজুড়ে।

বিশ্বের ৮০টি দেশ এবিষয়ে গবেষণা করছে। ভারতেও চলছে গবেষণা। এরই মধ্যে আশার আলো জাগিয়ে বেনারস হিন্দু ইউনির্ভাসিটি দাবি করল, আযুর্বেদিক ওষুধই রুখতে পারে মারণ করোনা ভাইরাসের গতি। আয়ুষ রিসার্চ অ্যান্ড ডেভেলপমেন্ট টাস্ক ফোর্সের উদ্যোগে বেনারস হিন্দু ইউনিভার্সিটিতে করোনা প্রতিরোধে আয়ুর্বেদিক ওষুধ ফিফাট্রল নিয়ে পরীক্ষা-নিরীক্ষা চলছে। ফিফট্রাল সাধারণত ব্যবহার করা হয়, জ্বর বা শ্বাসজনিত কোনও রোগের ক্ষেত্রে।

গবেষকদের দাবি করেছেন, এই ইমিউনো-বুস্টিং ড্রাগ করোনা রোগিদের শরীরে করোনা ভাইরাস প্রতিরোধ ক্ষমতা অনেকগুণ বাড়িয়ে তুলবে। আর সেটা প্রমাণ করতেই এবার এই ওষুধের ক্লিনিক্যাল ট্রায়াল শুরু হতে চলেছে।
যে কোনও রোগ বা সংক্রামককে প্রতিহত করতে ভারতের আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা ভরসাযোগ্য বলে দাবি করে বেনারস হিন্দু বিশ্ববিদ্যালয়ের দ্রব্যগুণ বিভাগের প্রধান ও এই প্রোজেক্টের দায়িত্বে থাকা ডক্টর কে এন দ্বিবেদী জানান, ‘যে কোনও রোগ বা সংক্রামককে প্রতিহত করতে ভারতের আয়ুর্বেদিক চিকিৎসা সব সময়ই ভরসাযোগ্য। করোনা সংক্রমণ রুখতে যে ওষুধের কথা বলা হচ্ছে, সেই ফিফাট্রল শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়। শ্বাসজনিত রোগের চিকিৎসায় ফিফাট্রল খুবই উপকারি।

আর যেহেতু সার্স-কভ-২ ভাইরাসের সংক্রমণে রোগীদের মধ্যে সিভিয়ার অ্যাকিউট রেসপিরেটারি সিনড্রোম দেখা যাচ্ছে, তাতে আশা করাই যায় এই ওষুধ সংক্রমণ কমাতে কিছুটা হলেও কাজে দেবে। পরীক্ষা করে দেখা হচ্ছে করোনা রোগিদের উপরে এই ওষুধের ভূমিকা কতটা। এমনিতে ফিফাট্রলের কোনও পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া নেই। তাই ট্রায়ালের ক্ষেত্রে অন্য কোনও ঝুঁকি নেই।’

এর পাশাপাশি তিনি জানান, ‘করোনা আক্রান্ত রোগীকে ঠিক কতটা পরিমাণ এবং কতদিনে বিরতিতে এই ওষুধ দিতে হবে এখন তার একটা প্রোটোকল তৈরি করার কাজ চলছে। এই প্রোটকল কেন্দ্রের টাস্ক ফোর্সের কাছে পাঠানো হবে। অনুমোদন পেলেই রোগীদের ওষুধ খাওয়ানো হবে।’

আয়ুষ টাস্ক ফোর্সের তরফে জানানো হয়েছে, আয়ুর্বেদিক ওষুধ ও থেরাপি নিয়ে গবেষণা চালাচ্ছে দেশের কয়েকটি বিশ্ববিদ্যালয় ও সায়েন্স রিসার্চ ফার্ম। তার মধ্যে বেনারস হিন্দু ইউনিভার্সিটির ফিফাট্রল আয়ুর্বেদিক ওষুধের প্রস্তাব গ্রহণ করা হয়েছে। এই ওষুধ নিয়ে ক্লিনিক্যাল ট্রায়ালও শুরু হতে চলেছে।

Related Articles

Back to top button
Close