fbpx
গুরুত্বপূর্ণদেশহেডলাইন

নমোর সেনা হাসপাতাল পরিদর্শন ঘিরে বিরোধীদের কুৎসাকে “বিদ্বেষমূলক-ভিত্তিহীন”, জবাব ভারতীয় সেনার

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির লেহ’তে সেনা হাসপাতাল পরিদর্শন ঘিরে বিভিন্ন কুৎসা ছড়ানোর মোক্ষম জবাব দিল ভারতীয় সেনাবাহিনী। বিভিন্ন সোশ্যাল মিডিয়ায় নমোকে ঘিরেজে সমালোচনা চলছে তা অত্যন্ত বিদ্বেষমূলক, ভিত্তিহীন। এমনটাই মত ভারতীয় সেনা জওয়ানদের।

গত শুক্রবার গালওয়ানে ভারত-চিন উত্তপ্ত পরিস্থিতির মধ্যে আচমকাই লাদাখে হাজির হন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি।  এরপর তিনি লেহ’তে সেনা হাসপাতাল পরিদর্শনে যান। মোদির সেনা হাসপাতাল পরিদর্শন ঘিরে একের পর এক কুৎসা মন্তব্য উঠতে থাকে সোশ্যাল মিডিয়ায়। সোশ্যাল মিডিয়ায় বিভিন্ন পোস্টে মোদিকে এমন সব প্রশ্ন ঘোরাফেরা করতে থাকে যে, ওটা সেনা হাসপাতাল  নাকি শ্যুটিংয়ের সেট? জওয়ানদের পোশাকের হাতা বেরিয়ে কেন?  কেউ প্রশ্ন তুলেছেন যে, ভেন্টিলেটর, অক্সিজেন নেই কেন? কারও প্রশ্ন,কেন চিকিৎসার কোনও সরঞ্জাম দেখা যাচ্ছে না? কেউ কেউ বলেন, আসল জওয়ান তো?  না অভিনেতাদের বসানো হয়েছে! এই পরিস্থিতিতে ভারতীয় সেনা এক বিবৃতি দিয়ে জানাল যে, বিভিন্ন মহল থেকে অপ্রমাণিত, বিদ্বেষমূলক এবং ভিত্তিহীন অভিযোগ করা হচ্ছে। তা অত্যন্ত দুর্ভাগ্যের।

 

সেনার উল্লেখ করেন যে, “ওই জায়গাটি জেনারেল হাসপাতালের অংশ। করোনা আবহে ১০০টি অতিরিক্ত শয্যা রাখা হয়েছে সেখানে। করোনার জন্য জেনারেল হাসপাতালের কয়েকটি ওয়ার্ডকে আইসোলেশন কেন্দ্র করা হয়েছে। এই হাসপাতালটিকে করোনা চিকিৎসাকেন্দ্রও পরিণত করা হয়েছে। কোভিডের কারণে  গালওয়ানের জখম জখম জওয়ানদের ওখানেই চলছে চিকিৎসা। ওই জায়গাতেই জওয়ানদের দেখতে গিয়েছিলেন সেনা প্রধান এমএম নারাভানে ও সেনা কম্যান্ডার।”

উল্লেখ্য, গালওয়ানে চিন-ভারত উত্তপ্ত পরিস্থিতির মধ্যে শুক্রবার আচমকা লাদাখে হাজির হন প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি। ভারতীয় জওয়ানদের মনোবল বাড়ানোর লক্ষ্যে  সেখানে উপস্থিত হন প্রধানমন্ত্রী। এরপরই তিনি লেহ’তে সেনা হাসপাতালে যান। সেখানে আহত জওয়ানদের সঙ্গে ব্যক্তিগতভাবে কথা বলেন প্রধানমন্ত্রী। এইসব বিতর্কের মধ্যেই এক বিবৃতি জারি করে সেনা জানিয়ে দেয় যে, “লেহ জেনারেল হাসপাতালে প্রধানমন্ত্রীর সফর নিয়ে কুৎসা ছড়ানো হচ্ছে। ভিত্তিহীন অভিযোগ আনা হচ্ছে। বীর সেনাদের চিকিৎসা নিয়ে এমন অভিযোগ অতন্ত্য দুর্ভাগ্যজনক। জওয়ানদের জন্য সেরা চিকিৎসার ব্যবস্থা করা হয়েছে।”

 

Related Articles

Back to top button
Close