fbpx
অফবিটদেশহেডলাইন

সুইচ বোর্ডে পাখির বাসা, এক মাস আলোহীন গ্রাম, সন্তানদের নিয়ে বাঁচলো ইন্ডিয়ান রবিন বার্ড

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: নৃশংসভাবে হস্তী হত্যা কিংবা চোরা শিকারীর নামে পশু হত্যা প্রতিবারই মানুষ তার নৃশংস রূপকে আয়নায় প্রতিফলিত হতে দেখেছে। কিন্তু তাঁর উল্টো পিঠটা দেখলে কখনও সখনও মনটা একটু ভাল হয়ে ওঠে, মুখে কোণে লেগে যায় আলগা একটা তৃপ্তির হাসি । এমনই এক মন ভাল করে দেওয়া ঘটনা ঘটল তামিলনাড়ুর শিবগঙ্গা জেলার একটি গ্রামে ।

একটি পাখি  ও তার সন্তানদের রক্ষা করতে এক মাসেরও বেশি সময় অন্ধকারে ডুবে রইল একটা গোটা গ্রাম ।

লকডাউন শুরুর সময় ঘটনাটি ঘটেছিল এই গ্রামে । গ্রামের প্রধান স্যুইচবোর্ডের মধ্যে বাসা বাঁধে ইন্ডিয়ান রবিন পাখিটি । ঘটনাটি চোখে পড়ে ওই লাইটপোস্টের পাশের বাড়ির কলেজ পড়ুয়া ছাত্র বছর কুড়ির কারুপ্পুরাজার । তিনি দেখেন, একটি পাখি ডালপালা, খড়কুটো এনে স্যুইচবোর্ডের মধ্যে সঞ্চয় করছে । সেখানে উঁকি দিয়ে দেখতে পান নীল, সবজে রঙের কয়েকটি ডিম পেরেছে পাখিটি । কিন্তু এমন জায়গা সে বেছে নিয়েছে যে, আলো জ্বালালেই নষ্ট হয়ে যাবে তার ডিমগুলি ।

কারুপ্পুরাজা স্থির করেন কিছু একটা করতেই হবে তাঁকে । বাসা ও ডিমের বেশ কিছু ছবি তুলে তিনি স্থানীয় কয়েকটি হোয়াটসঅ্যাপ গ্রুপে ঘটনাটি বিস্তারিত লিখে পাঠিয়ে দেন । ধীরে ধীরে জনমত গড়ে ওঠে । সকলেই সম্মত হন, আলো না জ্বালানোর বিষয়ে । ঠিক হয় যতদিন না পাখিটি তাঁর পরিবারকে নিয়ে ওখান থেকে উড়ে চলে যাচ্ছে, ততদিন আলো জ্বলবে না গ্রামে । ৩৫ দিন তাই গ্রামের রাস্তার কোনও আলো জ্বলতে দেননি গ্রামবাসীরা ।

Related Articles

Back to top button
Close