fbpx
দেশহেডলাইন

সমলিঙ্গ বিবাহকে ভারতীয় সমাজ ও মূল্যবোধ স্বীকৃতি দেয় না, হাইকোর্টে জানাল কেন্দ্র

যুগশঙ্খ ডিজিটাল ডেস্ক: ভারতে সমকামিতা আর অবৈধ বা শাস্তিযোগ্য নয় বলে ঐতিহাসিক রায় দিয়ে জানিয়ে দিয়েছে সুপ্রিম কোর্ট। ২০১৮ সালে সমকামিতাকে শাস্তিযোগ্য অপরাধ হিসাবে বর্ণনা করা ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৭ ধারা বাতিল করে দিয়েছে ভারতের সুপ্রিম কোর্ট। তবে  এবার সমলিঙ্গ বিবাহ নিয়ে দিল্লি হাইকোর্টের দ্বারস্থ হল কেন্দ্র।

কেন্দ্রের বক্তব্য, সমলিঙ্গে বিবাহ বিধিবদ্ধ নিয়মের পরিপন্থী, এই ধরনের বিবাহকে ভারতীয় সমাজ ও মূল্যবোধ স্বীকৃতি দেয় না। সমলিঙ্গে বিবাহের আইনি স্বীকৃতির বিরোধিতা করে দিল্লি হাইকোর্টে জানাল কেন্দ্র। সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতা এ বিষয়ে বলেন, ‘বিবাহ পবিত্র প্রতিষ্ঠান। আমাদের সমাজে ইতিমধ্যে যে নিয়ম আছে, তা সমলিঙ্গে বিবাহের পরিপন্থী। দু’জন একই লিঙ্গের মানুষের মধ্যে বিবাহকে ভারতীয় সমাজ ও মূল্যবোধ স্বীকৃতি দেয় না।’

আরও পড়ুন: প্রাক্তন নৌসেনা আধিকারিকের ওপর শিবসেনার হামলার প্রতিবাদে শতাধিক সেনা অফিসার

উল্লেখ্য, ১৯৫৬ সালের হিন্দু বিবাহ আইনের আওতায় সমলিঙ্গ বিবাহের অন্তর্ভুক্তি চেয়ে দিল্লি হাইকোর্টে আবেদন জমা পড়েছিল। এদিন সেই আবেদনের শুনানি ছিল দিল্লি হাইকোর্টের প্রধান বিচারপতি ডি এন প্যাটেল এবং বিচারপতি প্রতীক জালানের ডিভিশন বেঞ্চে। আদালতে সলিসিটর জেনারেল তুষার মেহেতা বলেন, ‘আইনে সমকামী বিবাহের কোনও নিয়ম নেই। সুপ্রিম কোর্ট শুধুমাত্র সমকামিতাকে অপরাধ নয় বলে রায় দিয়েছে। আইনি স্বীকৃতির দাবি গ্রাহ্য হলে তা বিধিবদ্ধ বিধানের বিপরীতগামী হবে।’
আবেদনকারীদের আইনজীবী আভিজিৎ আইয়ার মিত্র আদালতে জানান, সমলিঙ্গে বিবাহের ক্ষেত্রে কোনও আইনি বাধা নেই, কারণ দু’জন হিন্দুর মধ্যে বিবাহ হবে কিনা তা হিন্দু বিবাহ আইনের কোথাউ বলা নেই। এছাড়াও তিনি বলেন, হিন্দু বিবাহ আইনের আওতায় যে সুবিধা আছে, সমলিঙ্গে বিবাহ করা মানুষরা তা পান না।

Related Articles

Back to top button
Close