fbpx
কলকাতাগুরুত্বপূর্ণহেডলাইন

অমানবিক! পার্কিং ফি দিতে না পারায় ক্যানসার রোগীর গাড়িতে কাঁটা লাগাল পুলিশ

নিজস্ব প্রতিনিধি কলকাতা: রাস্তায় উল্টাপাল্টা জায়গায় গাড়ি পার্কিং করলে বিভিন্ন সময়ে কাঁটা লাগিয়ে দেয় পুলিশ। কিন্তু শনিবার সকালে এসএসকেএম হাসপাতালে রেডিয়েশন
দিতে এসে এক অদ্ভুত অভিজ্ঞতা হল বর্ধমানের শান্তিপদ দাসের। এদিন সকালে তিনি রেডিয়েশন দিয়ে ফের গাড়িতে উঠতে গিয়ে দেখেন কাঁটা লাগিয়ে দিয়েছে পুলিশ। যদিও পুলিশের দাবি, তারা তাদের কর্তব্য করেছেন মাত্র।

এসএসকেএম হাসপাতাল চত্বরে এমন অমানবিক দৃশ্য দেখে স্তম্ভিত, হতবাক সবাই। অভিযোগ, রোগীকে দেখিয়েও অনুনয়, বিনয় করেও কোনও কাজ হয়নি। জানা গিয়েছে, মুখের ক্যানসারে আক্রান্ত বর্ধমানের বাসিন্দা শয্যাশায়ী বৃদ্ধ আত্মীয়ের গাড়িতে করে এসএসকেএম-এ এসেছিলেন রেডিয়েশন নিতে। রেডিয়েশন নিয়ে রোগীকে গাড়িতে তুলতে গিয়েই দেখেন, গাড়ির চাকাতে কাঁটা মারা রয়েছে। কাগজপত্র, টাকাপয়সা জমা দিয়ে তাঁদের ফিরে যেতে হবে। কিন্তু রোগীকে নিয়ে আসার দ্রুততায় গাড়ির সমস্ত কাগজ আনা হয়নি। সেই কারণে ৪ ঘন্টা ধরে এসএসকেএম হাসপাতালেই পড়ে রইল রোগী ও তার পরিবার।

এখন প্রশ্ন উঠেছে, রোগীর গাড়ির ক্ষেত্রে কি নিয়ম কিছুটা শিথিল করতে পারত না পুলিশ?
পরিবারের অভিযোগ, রোগীকে দেখেও অমানবিক আচরণ করে পুলিশ। আত্মীয় লালু দাস জানান, “বর্ধমানের গ্রামের বাড়ি থেকে আমরা অনেক কষ্ট করে গাড়ি করে নিয়ে এসেছিলাম। রেডিয়েশন দেওয়ার পরই পুলিশ এসে বলে, এখানে গাড়ি পার্কিং করা যায় না। টাকা লাগবে। টাকা দিতে আপত্তি করাতেই, তারপর গাড়িতে কাঁটা লাগিয়ে দিয়ে চলে যান ওই পুলিশকর্মী।’ তার আরও দাবি, আমরা নিয়মভঙ্গ করতে চাই না, কিন্তু কিছু ক্ষেত্রে পরিস্থিতির বিচারে কি আর একটু মানবিক হতে পারত না পুলিশ? মানুষের থেকে নিয়মটাই বড় হল? এটা ঠিক নয়!

Related Articles

Back to top button
Close