fbpx
পশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

রাজ্যের প্রতিটি ব্লকে মানবাধিকার মঞ্চ গঠনের উদ্যোগ

ভাস্করব্রত পতি, বর্ধমান : রাজ্যের প্রতিটি জেলার প্রতিটি ব্লকে মানবাধিকার রক্ষায় কমিটি গঠনের উদ্যোগ নিয়েছে “ভারতীয় মানবাধিকার সংরক্ষণ সংঘ”। সাধারণ মানুষের প্রাপ্ত অধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার লড়াই চালানো হবে।

এদিন রাজ্যের ১৬ টি জেলার প্রতিনিধি দলের নিয়ে মানবাধিকারের ওপর একটি কর্মশালার আয়োজন করা হয় বর্ধমান শহরে। সেখানেই সংগঠনের রাজ্য সভানেত্রী সঙ্গীতা চক্রবর্তী একথা বলেন। এদিন প্রায় ১০০ জনকে মানবাধিকার ফিরিয়ে দেওয়ার লড়াইতে সামিল করে প্রশিক্ষণ দেওয়ার ব্যবস্থা করা হয়। এক দিনের এই কর্মশালায় উৎসাহ ছিল আশাব্যাঞ্জক।

সঙ্গীতা চক্রবর্তী জানান, আমরা দেখেছি সাধারণ মানুষ নানা অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে। মানুষের ভোটের ওপর নির্ভর করেই সরকার গঠিত হয়। কিন্তু আমরা দেখেছি, বিগত পঞ্চায়েত নির্বাচন সহ আরও বেশ কয়েকটি নির্বাচনে সাধারণ মানুষের ভোটাধিকার কেড়ে নেওয়া হয়েছে। মানুষ নিজের ভোট নিজে দিতে পারেনি। সরকারই তাঁদের বিরুদ্ধে দাঁড়িয়েছে। এমতবস্থায় সরকার যদি অধিকার কেড়ে নিতে চায়, আমরা লড়াই করবো সরকারের বিরুদ্ধেই।

এদিন বক্তব্য রাখেন সংগঠনের কেন্দ্রীয় কমিটির কার্যকর্তা মনিষা দাস পট্টনায়ক, মনোজ জেনা প্রমুখ। ভার্চুয়াল বক্তব্য রাখেন ভরতরাম শর্মা, প্রভিন রাম এবং চন্দ্র বোস। বক্তারা বলেন প্রতিটি মানুষের অধিকার রয়েছে তাঁর জন্য বরাদ্দকৃত অধিকারের পূর্ণ লাভ ভোগ করার। অথচ বহুক্ষেত্রে তাঁদের বঞ্চিত করা হয় নানা ভাবে।

সকলের অধিকার সকলকে দিতে হবে। অধিকার কেড়ে নিতে হবে। বর্তমান সময়ে সারা রাজ্য জুড়ে মানবাধিকার লঙ্ঘন বাড়ছে পাল্লা দিয়ে। বহু মানুষ আজ দুর্বিষহ যন্ত্রনা আর অপ্রাপ্তির মধ্যে দিন কাটাচ্ছেন। গনতন্ত্র রক্ষিত হচ্ছেনা। মানুষ তাঁর ন্যায্য অধিকার থেকে বঞ্চিত হচ্ছে বারবার। এর বিরুদ্ধে আন্দোলন এবং বঞ্চিত মানুষের পাশে থাকার সময় এসেছে।

সংগঠনের রাজ্য সম্পাদক দীপ দাশগুপ্ত বলেন, উদ্যম উদ্দীপনা এখন কাম্য। বুকের আগুন নিয়ে মানুষের পাশে দাঁড়াতে হবে। মানবাধিকার সংস্থা যত বেশি হবে তাতে ক্ষতি নেই। আমাদের মানুষের জন্য লড়াই বাঁচিয়ে রাখতেই মানবাধিকার সংস্থার প্রয়োজন। তিনি সকলকে সতর্ক করে বলেন, আগামী দিন কিন্তু ভয়াবহ হতে চলেছে। আমাদের আরও প্রস্তুত হতে হবে।

এদিন সংগঠনের পশ্চিম মেদিনীপুর জেলার সভাপতি হিসেবে অতনু ভট্টাচার্যকে নির্বাচিত করা হয়। এছাড়া ঘোষনা করা হয় খুব শিগগিরই তৃতীয় লিঙ্গদের নিয়ে সংগঠনের রাজ্য ইউনিট গঠিত হবে।

Related Articles

Back to top button
Close