fbpx
অফবিটপশ্চিমবঙ্গহেডলাইন

করোনা আবহে অভিনব শ্রাদ্ধানুষ্ঠান, আত্মার শান্তি কামনায় ভোজের পরিবর্তে দুঃস্থদের দেওয়া হল খাদ্য সামগ্রী সহ প্রয়োজনীয় জিনিস

শুভেন্দু বন্দোপাধ্যায়,  আসানসোল: রাজ্য তথা দেশজুড়ে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ বেড়েই চলেছে। এমন আবহের মধ্যে অভিনব এক  শ্রাদ্ধানুষ্ঠান হল আসানসোলের মহিশীলা কলোনির সবুজপল্লীতে।

ইসিএলের প্রাক্তন কর্মী হারাধন মণ্ডলের (৬৫) শ্রাদ্ধানুষ্ঠানে বুধবার  আত্মীয় কুটুম্বদের পরিবর্তে নিমন্ত্রণ জানানো হয়েছিলো স্থানীয় দুঃস্থদের। হারাধনবাবুর একমাত্র মেয়ে ছায়া মণ্ডল ও জামাই তাপস মণ্ডল ১০২ জনের হাতে বিভিন্ন সামগ্রী তুলে দেন।

 তাপসবাবু ও ছায়াদেবী বলেন, প্রত্যকের হাতে চারজনের মতো দশদিন চলবে এমন খাদ্যসামগ্রী, মিষ্টি, নতুন কাপড়, মাস্ক ও স্যানিটাইজার তুলে দেওয়া হয়েছে। তারা আরো বলেন, যে কোন পারলৌকিক কাজে বাড়িতে মানুষের পা পড়লে বা সেবা করতে পারলে আত্মার শান্তি হয়। লক ডাউনে পুরানো রীতি মেনে সেইভাবে সব কাজ করা সম্ভব নয়। লক ডাউনে যাদের খাদ্য সামগ্রীর প্রয়োজন তাদেরকে আমরা আমন্ত্রণ জানিয়ে খাদ্য সামগ্রী তুলে দিয়েছি।

এদিন মন্ডল পরিবারের তরফে পুরো স্বাস্থ্যবিধি ও সতর্কতা মেনে মুখে মাস্ক ও ফেস গার্ড পড়ে ও হাতে গ্লাভস  পড়ে খাদ্য সামগ্রী সহ অন্যান্য জিনিস বিলি করা হয়।  পুরোপুরি সামাজিক দূরত্ব বা সোশাল ডিস্টেন্স  মেনে হয় শ্রাদ্ধানুষ্ঠান। প্যাণ্ডেল জুড়ে ছিল করোনা ভাইরাসের সতর্কতায় নানান বার্তাও।

 উল্লেখ্য,  ইসিএলের প্রাক্তন কর্মী হারাধন মন্ডল  গত ৩১ মে ফুসফুসের সংক্রমণ নিয়ে মারা যান দূর্গাপুরের একটি বেসরকারি হাসপাতালে। তার পারলৌকিক কাজ বা শ্রাদ্ধানুষ্ঠানের কাজ করেন একমাত্র মেয়ে হিসাবে ছায়া মন্ডল । মন্ডল পরিবারের এই কাজে এলাকার বাসিন্দারাও খুব খুশি।

Related Articles

Back to top button
Close